পুনর্নির্বাচনে কোথাও ঘাসফুল, কোথাও ফুটল পদ্ম

ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: কিছু কেন্দ্রে এমন পরিস্থিতি হয়েছিল ভোট দিতে পারেননি অর্ধেক ভোটার৷ সন্ত্রাস, সংঘর্ষে হাড়হিম করা পরিস্থিতি হয়েছিল সেই সব আসনে৷ নির্বাচন কমিশন ফের সেখানে ভোট নেওয়ার ব্যবস্থা করে৷ বাঁকুড়ায় পাঁচটি কেন্দ্রে পুনর্নির্বাচন হয়৷ সেখানে টক্কর হয়েছে সমানে সমানে৷

রাইপুরের ঢেকো গ্রামপঞ্চায়েত৷ এখানকার চারকোল প্রাথমিক বিদ্যালয় ও চাকা রঘুনাথপুর বুথে পুনরায় ভোট হয়৷ দু’টি বুথেই বিজেপি জিতেছে৷ অন্যদিকে বারিকুলের মেলেড়া গ্রামপঞ্চায়েতের লাগদা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বুথটি ভোটের দিন রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়৷ ব্যালট লুঠের অভিযোগ ওঠে দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে৷ কমিশন এখানে পুনর্নির্বাচনের নির্দেশ দেয়৷ গণনার শেষে দেখা গেল তৃণমূল এখানে জয়ী৷

খাতড়ার সুপুর গ্রামপঞ্চায়েত৷ স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বুথে তৃণমূলের বিরুদ্ধে ছাপ্পা ভোট দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল৷ ক্ষোভে ব্যালট বাক্সে আগুনও লাগিয়ে দেওয়া হয়৷ সেই পঞ্চায়েতেও তৃণমূল ক্ষমতায় এল৷ তবে রানিবাঁধের রুদড়া গ্রামপঞ্চায়েত হাতছাড়া হল শাসকদলের৷

- Advertisement -

এখানকার লদ্দা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বুথ দখলের অভিযোগ উঠেছিল তৃণমূলের বিরুদ্ধে৷ তৃণমূল বহিরাগত এনে এই কাজ করিয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে৷ শুক্রবার ফলাফল ঘোষণার পর দেখা গেল এই গ্রামপঞ্চায়েতে বিজেপি পেয়েছে পাঁচটি আসন৷ তৃণমূল চারটি৷ সিপিএম একটি আসনে জয়ী হয়েছে৷

Advertisement ---
---
-----