প্রধানমন্ত্রীর কনভয়ে ভয়াবহ বিস্ফোরণ

গাজা সিটি: কড়া নিরাপত্তায় চলছিল প্রধানমন্ত্রীর কনভয়৷ সেই সারিতেই ঘটানো হল বিস্ফোরণ৷ তাতে অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচেছেন প্যালেস্টাইনের প্রধানমন্ত্রী রামি হমদল্লা৷ আল জাজিরা সহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের খবর, ইজরায়েল দ্বারা অবরুদ্ধ ফিলিস্তিনি অধ্যুষিত গাজা ভূখণ্ডের দিকে যাওয়ার সময় এই হামলা চালান হয়েছে৷

প্রাধানমন্ত্রী হমদল্লা তিনি বলেন “এই হামলা দেশপ্রেমের নিদর্শন নয়৷ এটি ভীরু কাপুরুষতার কাজ মাত্র যা আমাদের দেশের মানুষের কাজ হতে পারেনা৷ এটি গাজার মানুষেরও কাজ হতে পারেনা৷” প্যালেস্টাইন সরকার এই হামলার জন্য হামাসকে দায়ী করেছে৷ যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও সংগঠন এই বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেনি৷

- Advertisement -

আরব দুনিয়ার বিতর্কিত অংশ হল গাজা ভূখণ্ড৷ ভূমধ্যসাগর তীরে এই অংশটি ইজরায়েল দ্বারা ঘেরা৷ গাজা শাসান করে ফিলিস্তিনি সশস্ত্র সংগঠন হামাস৷ আর মূল প্যালেস্টাইন অংশের শাসক হল আল ফাতাহ৷ দুই সংগঠন ফিলিস্তিনিদের দাবি নিয়ে সরব থাকলেও পরস্পর বিরোধী৷ গাজা ও প্যালেস্টাইনের মধ্যভাগে আছে ইজরায়েল রাষ্ট্র৷

প্যালেস্টাইনের সংবাদ সংস্থা বাফা জানিয়েছে, প্রাধানমন্ত্রী হমদল্লা ছাড়াও এবং ফিলিস্তিনি গোয়েন্দা প্রধান মজিদ ফারজ এই বিস্ফোরণে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন৷ নাশকতায় সাত নিরাপত্তারক্ষী আহত হয়েছেন বলে খবর৷

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর কনভয়ে হামলার সংবাদ নিশ্চিত করেছে প্যালেস্টাইন কর্তৃপক্ষ৷ রামাল্লা থেকে জারি করা বিবৃতিতে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের দাবি, মঙ্গলবার যখন প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর কনভয় গাজা সিটি সফরে ছিলেন সেসময়ই তাঁর কনভয় লক্ষ্য করে হামলা চালান হয়৷ জানা গিয়েছে প্রধানমন্ত্রী একটি বর্জ্য জল পরিশোধনাগারের উদ্বোধন করতে এবং কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করতে গাজা গিয়েছিলেন৷ সেই কর্মসূচির মাঝেই এই হামলা চালান হয়েছে৷

এই ঘটনার পর প্যালেস্টাইনের প্রধানমন্ত্রী হামদল্লা রামাল্লার হাসপাতালে গিয়ে জখম রক্ষীদের চিকিৎসার বিষয়ে খোঁজ নেন৷

Advertisement
---