‘Civil War’-এর পর ‘Blood Bath’ মমতার বিরুদ্ধে রাজ্যপালকে নালিশ বিজেপির

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: শিলচর বিমানবন্দরে তৃণমূল নেতারা যদি এতই মার খেয়েছেন, তাহলে ছবি তুললেন কী করে? প্রশ্ন তুলেছেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ বিজেপি প্রতিনিধি দলকে সঙ্গে নিয়ে দিলীপবাবু রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠির সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন৷ জাতীয় নাগরিকপঞ্জিকরণ বা এনআরসি নিয়ে ওঠা পরিস্থিতি সম্পর্কে আলোচনা করতে রাজ্যপালের কাছে গিয়েছিলেন বিজেপির প্রতিনিধিরা৷

পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি চালু হোক, তা ইতিমধ্যেই দাবি হিসেবে পেশ করেছে বিজেপি৷ এদিন শিলচর বিমানবন্দরে তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদদের আটকে রাখা এবং পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতির ভিডিও হোয়াটস্ অ্যাপের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়৷ তা দেখে দিলীপবাবুর মন্তব্য কেউ মার খেলে ভিডিও করলেন কখন? এদিন বিজেপির তরফ থেকে রাজ্যপালকে চিঠি দিয়ে জানালো হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লিতে নিজের বক্তব্যে ‘Blood Bath’ শব্দটি ব্যবহার করেছেন৷ সুপ্রিম কোর্ট দ্বারা নির্দেশিত কোনও কর্মসূচীকে কেউ কীভাবে এমন ব্যাখ্যা করতে পারে৷

প্রসঙ্গত উল্লেখযোগ্য, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লিতে একটি অনুষ্ঠানে নিজের বক্তব্যের সময় ‘Civil War’ কথাটি উল্লেখ করে বিতর্কে জড়িয়েছেন৷ অসমেও মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ৪টি মামলা শুরু হয়েছে৷ রাজ্যপালকে চিঠিতে লেখা হয়েছে, তৃণমূল কংগ্রেস, সিপিএম এবং কংগ্রেস অসমের জনতাকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে৷ এই কাজ শুধু করা হচ্ছে ভোটব্যাংকের রাজনীতি করার জন্য৷

- Advertisement -

চিঠিতে বলা হয়েছে, বিজেপি সরকার Passport Act and Foreigners Act সংশোধন করেছে৷ বাংলাদেশ থেকে আশা হিন্দু, খৃষ্টান, বৌদ্ধদের ভারতে থাকার আইনত অধিকার দেওয়া হবে৷ ওই স্মরণার্থীরা নাগরিকত্ব পাবেন৷ তবে বাংলাদেশি মুসলমানদের চিহ্নিত করা হবে৷

Advertisement
---