ঢাকা: ভারতে ক্ষমতাসীন বিজেপির অন্যতম নেতা সুব্রাহ্মণ্যম স্বামী বাংলাদেশ দখলের হুমকি ঘিরে আগেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ৷ এবার তার প্রতিক্রিয়া দিল অন্যতম বিরোধী দল বিএনপি ৷ রবিবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বর্তমান সরকার দেশের জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না, তারা অন্য কারও প্রতিভূ হিসাবে দেশ শাসন করছে মাত্র।

বিএনপি মহাসচিব জানিয়েছেন, শেখ হাসিনার প্রতি ভারতের সমর্থন রয়েছে৷ তার কারণ, সুব্রাহ্মণ্যম স্বামীর প্রতি কৃতজ্ঞ হয়ে বাংলাদেশকে দখল করে নেয়ার মতো মারাত্মক হুমকিকে আমল দেয়নি আওয়ামী লীগ সরকার।

সম্প্রতি ত্রিপুরা এসেছিলেন বিজেপি নেতা সুব্রাহ্মণ্যম স্বামী ৷ বিতর্কিত বয়ান দেওয়ার জন্য বারে বারে তিনি প্রচারে থাকেন ৷ বর্তমানে বিজেপি শাসিত ত্রিপুরা৷ আর সেই রাজ্যের রাজধানী আগরতলায় এসে তিনি বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশে যদি হিন্দুদের উপর নির্যাতন বন্ধ না হয়, তাহলে ভারতের উচিত বাংলাদেশের ভূখণ্ড দখল করা৷’

বাংলাদেশে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর কিছু হামলার ঘটনা তুলে ধরেন স্বামী বলেন, হালে বগুড়া জেলার একটি হিন্দু গ্রামে হিন্দু দেব-দেবীর মূর্তি ভেঙ্গে বাইরে ফেলে দেওয়া হয়৷ তিরিশ ঘর হিন্দুর বাস ওই গ্রামে৷ তাঁরা দারুণভাবে মুষড়ে পড়েছেন৷ হিন্দুদের উপর এই ধরনের অত্যাচার যদি হাসিনা সরকার দমন করতে ব্যর্থ হয়, তাহলে আমার মতে ভারতের উচিত হবে বাংলাদেশ ভূখণ্ড দখল করা৷”

সুব্রাহ্মণ্যম স্বামী একজন সাংসদ ও শীর্ষ বিজেপি নেতা ৷ আগরতলায় তিনি যে মন্তব্য করেছেন তার প্রতিক্রিয়ায় শেখ হাসিনার সরকার কেন নীরব সেই প্রশ্ন তুলেছেন বিএনপির মহাসচিব রুহুল রিজভী ৷ তিনি বলেছেন, এই হুমকি আমলে না নিয়ে দেশের চেয়ে নিজেদের স্বার্থকে অধিক গুরুত্ব দেয়ায় পুনরায় প্রমাণিত হয়েছে, বর্তমান সরকার দেশের জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না৷ তারা অন্য কারও প্রতিভূ হিসাবে দেশ শাসন করে মাত্র।

--
----
--