ভাঙড়ে তৃণমূল নেতার দেহ উদ্ধার

দক্ষিণ ২৪ পরগনা: পুকুর থেকে উদ্ধার হল তৃণমূল নেতার মৃতদেহ৷ নিহতের নাম শিবু দেবনাথ (৬৫)৷ রবিবার সকালে ভাঙড় থানার সাইহাটি এলাকার একটি পুকুর থেকে উদ্ধার হয় ওই তৃণমূল নেতার মৃতদেহ। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের অভিযোগ, খুন করা হয়েছে শিবু দেবনাথকে৷ সকালে খবর পেয়ে ভাঙড় থানার পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে৷ এই ঘটনায় বিজেপির বিরুদ্ধেই অভিযোগের আঙুল তুলেছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। তবে বিজেপির কারও কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি৷

শনিবার থেকে নিখোঁজ ছিলেন শিবুবাবু৷ তিনি এলাকার ১০০ দিনের কাজের সুপারভাইজার ছিলেন৷ স্থানীয় সূত্রে খবর, কিছুদিন আগে এক বিজেপি কর্মীর সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েছিলেন শিবু দেবনাথ৷ স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি শিবুবাবুর খুনের পিছনে বিজেপির হাত রয়েছে৷

শনিবার সকালে স্থানীয় হারু দেবনাথ নামে এক ব্যক্তি শিবুবাবুকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যান৷ এরপর রাত গড়ালেও বাড়ি ফেরেননি শিবুবাবু৷ এদিকে এলাকায় নেই হারু দেবনাথও৷ রবিবার সকালে স্থানীয়রাই দেখেন শিবু দেবনাথের বাড়ির পাশে একটি পুকুরে তাঁর মৃতদেহ ভাসছে৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: আলাদা ‘তিস্তা তোর্সা প্রান্ত’ রাজ্যের দাবি উত্তরবঙ্গে!!

খবর দেওয়া হয় ভাঙড় থানায়৷ পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে৷ মৃতের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে৷ মৃতদেহের কপালে রক্তক্ষরণেরও চিহ্ন বর্তমান৷ স্থানীয়দের অনুমান খুন করা হয়েছে শিবু দেবনাথকে৷ এরপরই এলাকার লোকজন দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে মৃতদেহ আটকে দীর্ঘক্ষণ বিক্ষোভ দেখান৷

পুলিশ গিয়ে দোষীদের গ্রেফতারের আশ্বাস দিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ভাঙড় থানার পুলিশ৷ স্থানীয় তৃণমূল নেতা কাইজার আহমেদ বলেন, “ শিবু দেবনাথ আমাদের দলের সক্রিয় কর্মী। তাঁকে পরিকল্পিত ভাবে খুন করা হয়েছে৷ এই ঘটনার পিছনে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের হাত রয়েছে৷ পুলিশ যথাযথ তদন্ত করে দোষীদের গ্রেফতার করুক৷’’

আরও পড়ুন: পুরীর সমুদ্রে স্নান করতে নেমে মৃত ২ ছাত্র

Advertisement ---
-----