দাম্পত্যকলহে জর্জরিত যুবকের রহস্যমৃত্যু

প্রতীকী ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, বহরমপুর: ঘরের মধ্যে থেকে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় উদ্ধার ব্যক্তির দেহ৷ দাম্পত্য কলহের জেরেই ওই ব্যক্তি আত্মঘাতী হয়েছেন বলে প্রথামিক অনুমান৷ ঘটনাটি মুর্শিদাবাদের ফারাক্কার দু’নম্বর নিশিন্দ্রা কলোনির৷

আরও পড়ুন: ‘অত্যন্ত আশঙ্কাজনক’ করুণানিধি, চেন্নাই যাচ্ছেন মমতা

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত কয়েক মাস ধরেই নিশিন্দ্রা কলোনির বাসিন্দা স্বামী দীপক হালদারের সঙ্গে স্ত্রী চায়না হালদারের বিবাদ চলছিল৷ মাস তিনেক আগে দীপকের বিরুদ্ধে স্ত্রী চায়না স্বামী বধূ নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের করে শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে চলে যান৷

এরপর পরিবারের অন্য সদস্যরা চায়নাকে বুঝিয়ে ফের বাড়ি ফিরিয়ে আনে৷ কিন্তু গত দু’দিন আগে স্বামী স্ত্রীর ফের বিবাদ চরম পর্যায়ে পৌঁছায়৷ ফের বাড়ি ছেড়ে চলে যান চায়না হালদার৷ এরপর তাঁর সঙ্গে আর কেউ যোগাযোগ করতে পারেননি৷ এই ঘটনার পর একাই ছিলেন দীপক৷

আরও পড়ুন: পোগবার ম্যাঞ্চেস্টার ছাড়া নিয়ে জল্পনা

কিন্তু মঙ্গলবার সকাল থেকে সাড়া না মেলায় প্রতিবেশীরা দীপকের ঘরের দরজা ভেঙে দেখেন গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় পড়ে রয়েছে তার দেহ৷

পুলিশ এসে দীপক হালদারের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়৷ দাম্পত্য কলহের জেরে আত্মহত্যা, নাকি অন্য কোনও কারণে মৃত্যু তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ৷ তদন্তে নেমে পুলিশ দীপকের স্ত্রী চায়নার খোঁজ শুরু করেছে৷

আরও পড়ুন: ভাইরাল সানির স্নানের ভিডিও!

Advertisement
----
-----