স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: কবর থেকে মৃতদেহ তুলে তন্ত্রসাধনার অভিযোগ উঠল৷ এই অভিযোগ উঠল বীরভূমের বোলপুরের পাড়ুইয়ে৷ এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷ তদন্তে নেমেছে পাড়ুই থানার পুলিশ৷

আরও পড়ুন: তন্ত্রসাধনার জন্য শিশুটির শরীরে সূচ ঢুকিয়েছি: স্বীকার সনাতনের

- Advertisement -

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পাড়ুই থানার বল্লভপুর সেতুর কাছ থেকে একটি মুণ্ডহীন মৃতদেহ উদ্ধার হয়৷ স্থানীয় বাসিন্দারাই প্রথম মৃতদেহটি পড়ে থাকতে দেখেন৷ সঙ্গে সঙ্গে এলাকায় হইচই পড়ে যায়৷ স্থানীয় বাসিন্দারা জড়ো হয়ে যান৷ কার মৃতদেহ এভাবে পড়ে, তা নিয়ে চাপা গুঞ্জনও শুরু হয়৷ খবর যায় পুলিশে৷ পুলিশ গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে৷ শুরু হয় তদন্ত৷

তখন দেখা যায় সেতুর কাছেই একটি কবর খোঁড়া অবস্থায় পড়ে রয়েছে৷ প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশ জানতে পারে, বৃহস্পতিবার ওই এলাকায় ৭০-৭৫ বছরের এক বৃদ্ধা মারা যান৷ অশ্বিনী সর্দার নামে ওই বৃদ্ধা এলাকার বাসিন্দা ছিলেন৷ তাঁর মৃতদেহই পাড়ুই থানার বল্লভপুর সেতুর কাছে কবর দেওয়া হয়েছিল৷ তাঁর পরিবারের সদস্যরা গিয়ে দেহটি সনাক্ত করেন৷ অশ্বিনীর ছেলে অসুর সর্দারের দাবি, তাঁর মায়ের মুণ্ড কেটে এখানে তন্ত্রসাধনা করা হয়েছে৷

আরও পড়ুন: সিদ্ধিলাভের আশায় নাবালককে বলির চেষ্টা, শ্রীঘরে তান্ত্রিক

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, মৃতদেহের পাশে তন্ত্রসাধনা করার বিভিন্ন সামগ্রী পড়েছিল৷ তা দেখেই সন্দেহ ছড়িয়েছে যে তন্ত্রসাধনার জন্যই ওই দেহ কবর থেকে তুলে আনা হয়েছিল৷ তার পর মুণ্ড কেটে সেই কাজ শুরু হয়৷ স্থানীয়দের ধারণা, রাতভর সাধনার পর ভোরে মৃতদেহ রাস্তার পাশে ফেলে রেখে পালিয়ে গিয়েছে৷ তবে এই ঘটনায় কে বা কারা জড়িত, তা এখনও পুলিশ জানতে পারেনি৷

আরও পড়ুন: হুগলিতে তন্ত্র সাধনার বলি শিশু, গ্রেফতার তান্ত্রিক

- Advertisement -