#MeToo : হিরানির পাশে দাঁড়ালো প্রায় গোটা ইন্ডাস্ট্রি

মুম্বই : ফের শুরু হয়েছে #MeToo ঝড়৷ নিশানায় পরিচালক রাজকুমার হিরানি৷ তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন তাঁরই এক অ্যাসিসটেন্ট৷ ‘সঞ্জু’ ছবির পোস্ট প্রোডাকশন চলাকালীন তাকে একাধিকাবার যৌন হেনস্তা করেছিল বলে দাবি জানিয়েছে সেই মহিলা৷

বলিউডের সবচেয়ে ডিমান্ডিং পরিচালকদের মধ্যে একজন হিরানি৷ তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ আনতেই রেরে করে উঠল বলিউডের কিছু শিল্পীরা৷ রাজকুমারের পাশে দাঁড়ালেন আরশদ ওয়ার্সি, শরমন যোশী এবং অভিনেত্রী রাগেশ্বরী৷

শরমন যোশী তাঁর ট্যুইটার পোস্টে হিরানিকে সমর্থন করে লিখেছেন, “রাজু স্যার একজন অত্যন্ত, নম্র, ভদ্র মানুষ৷ ওনার থেকে আমি অনেক কিছু শিখেছি৷ ওনার সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়ে আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি৷ আপনার পক্ষে এই পরিস্থিতিতে নিজের সমর্থনে কথা বলা কতটা কঠিন সেটা আমি বুঝতে পারছি৷ একদিন সত্যিটা সামনে আসবেই৷”

অন্যদিকে অভিনেত্রী দিয়া মির্জাও বলেছেন, “রাজকুমার হিরানিকে ১৫ বছর ধরে চিনি৷ ওনার বিরুদ্ধে এমন কিছু ভাবতেও আমার অসুবিধে হচ্ছে৷ ওনার মতো ভদ্র মানুষ আমি খুব কম দেখেছি৷ আমার এখানে কিছু বলা ঠিক হবে না৷ আশা করছি সত্যতার বিচার হবে৷”

মুন্না ভাই ফ্র্যাঞ্চাইজির ‘সার্কিট’ আরশাদ ওয়ারসি বিশ্বাস করেন এমন নিম্নমানের কাজ হিরানি করতে পারেন না৷ “ওনার সঙ্গে কাজ করে এসেছি এত বছর ধরে৷ কখনও কারও সঙ্গে খারাপ আচরণ করতে দেখেনি৷”

অভিনেত্রী রাগেশ্বরীও হিরানিকে সমর্থন করে এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, “২০ বছর ধরে একটা মানুষকে চেনার পর এটুকু নিঃসন্দেহে বলতে পারি যে রাজকুমারের মতো ভালো মানুষ খুব কম দেখা যায়৷ আমি একজন মহিলা হয়েই এই কথাগুলো বলছি৷”


যৌন হেনস্তার অভিযোগের জেরে থেমে গিয়েছে পরিচালকের আগামী বড়ো প্রজেক্টের কাজ৷ দিন কতক আগেই মুন্নাই ভাই ফ্র্যাঞ্জাইজি নিয়ে গুড নিউজ পেয়েছিল দর্শকরা৷ মুন্না ভাই এবং সার্কিট কে নিয়ে ফের দর্শকের সামনে আসতে চলেছে হিরানি৷

‘লাগে রহো মুন্নাভাই’র থার্ড পার্ট নিয়েই বাঁধল গোল৷ ছবির কাজ বন্ধ হয়ে গেল হিরানির বিরুদ্ধে আসা যৌন হেনস্তার অভিযোগের কারণে৷ #MeToo মুভমেন্ট নিয়ে রীতিমত গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য CINTAA’য় কয়েক মাস আগে বিশেষ বোর্ড গঠন করা হয়েছে৷

প্রত্যেকের জন্য ইন্ডাস্ট্রিকে সুরক্ষিত করার জন্য সঠিক গবেষণা চালাতে শুরু করে দিয়েছে সেই বোর্ড৷ যার জেরে স্থগিত রাখা হয়েছে বহু সিনেমা৷ সাজিদ খানের ‘হাউজফুল’ থেকে শুরু করে হিরানির ‘মুন্না ভাই’৷ যতদিন না রাজকুমার ক্লিন চিট পাচ্ছেন ততদিন বন্ধ থাকবে ‘মুন্না ভাই থ্রি’র কাজ৷