দেরাদুন: দেরাদুন: ব্রুসেলস বিমানবন্দরে বিস্ফোরণের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই দেরাদুন বিমানবন্দরে বোমাতঙ্ক। শুধু বিমানবন্দরই নয়, জেট এয়ারওয়েজের বিমানেও বোমাতঙ্ক হয়েছে। তাও একটি নয়, একেবারে পাঁচ-পাঁচটিতে।

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার বিকালে প্রথমে দেরাদুন বিমানবন্দরে বোমাতঙ্ক ছড়ায়। দিল্লি থেকে দেরাদুনে আসা জেট এয়ারওয়েজের বিমানে বোম রয়েছে বলে খবর আসে। জেট এয়ারওয়েজের কাছেই বোমাতঙ্কের খবরটি আসে। সঙ্গে সঙ্গে জেট এয়ারওয়েজের তরফে দেরাদুন বিমানবন্দরে খবর পাঠানো হয়। সঙ্গে সঙ্গেই দেরাদুনে আসা জেট এয়ারওয়েজের বিমানটি খালি করে তল্লাশি করা হয়। দেরাদুন বিমানবন্দরেও চলে জোর তল্লাশি। শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত, দেরাদুন বিমানবন্দরে বা দিল্লি থেকে আসা জেট এয়ারওয়েজের বিমানে কোনও বোমা মেলেনি।

এদিন দেরাদুনের পাশাপাশি চেন্নাই, আগরতলা সহ জেট এয়ারওয়েজের আরও ৫টি রুটের বিমানে বোমাতঙ্কের খবর মিলেছে। এই সবকটি বিমানই এদিন দিল্লি থেকে ছাড়া হয়েছিল। ইতিমধ্যে দেরাদুনগামী বিমান ছাড়াও আগরতলা এবং চেন্নাইগামী জেট এয়ারওয়েজের বিমানেও তল্লাশি চালানো হয়েছে। চেন্নাই ও আগরতলাগামী বিমানদুটিকে পরিত্যক্ত স্থানে নামিয়েই তল্লাশি করা হয়। যদিও এখনও পর্যন্ত এই বিমানগুলিতেও বিস্ফোরক কিছু মেলেনি।

দেরাদুন বিমানবন্দর সহ জেট এয়ারওয়েজের বিমানে বোমাতঙ্কের খবর প্রকাশিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দেশের সমস্ত বিমানবন্দরে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। কলকাতা বিমানবন্দরেও ‘হাই অ্যালার্ট’ জারি করা হয়েছে। বাইরে থেকে আসা কলকাতা বিমানবন্দরের সমস্ত বিমান এবং বিমানবন্দরের গাড়িগুলির উপর নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

 

----
--