গাজিয়াবাদ : নারকীয় অত্যাচার চলল এক ১৭ বছরের কিশোরের ওপর৷ যৌন নির্যাতন করা হয় তাকে৷ পাঁচ ব্যক্তি ওই কিশোরকে যৌন নির্যাতন করে লোহার রড দিয়ে৷ জানা গিয়েছে, ওই পাঁচজন ব্যক্তি প্রথমে কিশোরকে প্রায় অচেতন করে ফেলে৷ তারপর তার মলদ্বারে লোহার রড ঢুকিয়ে দেয়। পাশবিক এই ঘটনাটি ঘটেছে গাজিয়াবাদের মোদিনগরে।

গাজিয়াবাদের পুলিশ সুপার বৈভব কৃষ্ণ বলেন, ‌কিশোরকে দোকানের মধ্যে টেনে ঢোকানো হয় এবং তাকে কিছু খাইয়ে আচ্ছন্ন করে রাখা হয়। সেই সময় কিশোর নিজেকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে তার মলদ্বারে লোহার রড ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। গোটা ঘটনাটি আবার মোবাইলে ভিডিও করে অভিযুক্তরা।

আরও পড়ুন: ফ্লাইটের টিকিটে পান ২,৫০০ টাকার ছাড়

পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার ওই কিশোর নিজের সাইকেল মেরামতি করে বাড়ি ফিরছিল। সেই সময় এই ঘটনাটি ঘটে। দ্বাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রের কাছ থেকে ১৬০০ টাকা চুরি করে নেয় ৫ জন অভিযুক্ত। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্তদের মধ্যে একজন পুলিসের হেড কনস্টেবলের ছেলে। ধৃতদের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। খোঁজ চলছে অভিযুক্তদের।

আরও পড়ুন: কামারহাটিতে শ্যুট আউটে যুবকের মৃত্যু

আক্রান্তের বাবা জানান, দীর্ঘদিন ধরেই তাঁর ছেলেকে ওই পাঁচজন উত্ত্যক্ত করত। এমনকী কিশোরের জাতি নিয়েও অশালীন মন্তব্য করত অভিযুক্তরা। এর আগে, বীরভূমে এক কিশোরকে গরুর সঙ্গে যৌনসংসর্গ স্থাপনে বাধ্য করা হয়৷ সে-ই গরু নিয়ে মাঠে গিয়েছিল৷ ভিডিও ভাইরাল হতেই বাড়িতে সে সব জানায়৷ তার পর অভিযোগ দায়ের হয় পুলিশের কাছে৷ ঘটনার সূত্রপাত ওই ভিডিও ঘিরে৷

আরও পড়ুন: ইদের রাতে রক্তাক্ত রায়না

বীরভূমে আচমকাই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে ওই ভিডিও৷ ভিডিওতে দেখা যায় একটি গরুর সঙ্গে সঙ্গম করছে এক কিশোর৷ পরে জানা যায় ভিডিওটি বীরভূমের খয়রাশোল থানার জামরান গ্রামে৷ পরিচয়ও মেলে ওই কিশোরের৷ তখন সে বাড়িতে সব জানায়৷ তখনই ছেলেটির বাবা খয়রাশোল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন৷

আরও পড়ুন: ফাদার্স ডে-তে বাবাকে উপহার দিন এই সিগারেট

----
--