ভারতের জেলগুলির অবস্থা নিয়ে থেরেসা মে’কে তীব্র প্রতিক্রিয়া মোদীর

নয়াদিল্লি: ব্রিটিশরা মহাত্মা গান্ধী ও জওহরলাল নেহরুকে ভারতীয় জেলেই পাঠিয়েছিল৷ তাহলে বিজয় মালিয়ার ভারতের জেলে থাকতে অসুবিধা কোথায়? ব্যাংক জালিয়াতিতে অভিযুক্ত লিকার ব্যারনকে ভারতের হাতে তুলে দিতে এই কথা গুলি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’কে বলে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ সোমবার সেই কথা সাংবাদিকদের জানান বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ৷

মোদী সরকারের চতুর্থ বর্ষপুর্তি উপলক্ষ্যে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে সুষমা স্বরাজ বলেন, ‘‘ব্রিটিশ আদালত ভারতের জেলগুলির অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল৷ তখন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে বলেছিলেন, এই জেলখানাগুলিতেই এক সময় ব্রিটিশরা গান্ধী ও নেহরুকে বন্দি করে রেখেছিল৷’’ অর্থাৎ মোদীর কথা নির্যাস করলে দাঁড়ায়, ব্রিটিশরা ভারতীয়দের ভারতের জেলেই বন্দি করত৷ তখন জেলখানাগুলির অবস্থা নিয়ে তাঁরা রা কাড়ত না৷ সেই ব্রিটিশরা এখন ভারতের জেলগুলির অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে৷

চলতি বছর এপ্রিলে ব্রিটেনে যান মোদী৷ দেখা করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সঙ্গে৷ তখনই দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে বিজয় মালিয়ার ব্যাপারে কথা হয়৷ ভারতের একাধিক ব্যাংকের ন’ হাজার কোটি টাকা নয়ছয় করে মালিয়া এখন লন্ডনে রয়েছেন৷ তাই বিজয় মালিয়াকে ভারতের হাতে তুলে দিতে থেরেসা মে’র সরকারকে ইতিবাচক ভূমিকা নিতে বলেন মোদী৷ সেই সময় ভারতের আদালত সম্পর্কে ব্রিটিশ আদালতের মনোভাব মোদীকে জানান থেরেসা মে৷ জবাবে গান্ধী ও নেহরু প্রসঙ্গ তুলে আনেন নরেন্দ্র মোদী৷

- Advertisement -

এ দিন সুষমা স্বরাজ আরও বলেন, ‘‘আমরা মালিয়াকে ভারতের হাতে তুলে দিতে ব্রিটিশ সরকারকে অনুরোধ করেছি৷ মালিয়ার বিরুদ্ধে ১২ ব্যাংক নিয়ে গঠিত কনসোর্টিয়াম মামলা করেছে৷ সেই মামলার রায় কনসোর্টিয়ামের পক্ষে গিয়েছে৷ খুব তাড়াতাড়ি টাকা উদ্ধার করা হবে৷’’

Advertisement ---
-----