নাগরিকত্ব সংশোধনী: বিজেপি মন্ত্রীর বিরুদ্ধেই ‘দেশদ্রোহ’ অভিযোগে এফআইআর

গুয়াহাটি: নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের পক্ষে থাকায় অসমের মন্ত্রী তথা বিজেপির অন্যতম শীর্ষ নেতা হিমন্ত বিশ্বশর্মাক বিরুদ্ধে ‘দেশদ্রোহী’ অভিযোগ দায়ের করা হল৷ ঘটনায় উত্তর পূর্বাঞ্চলের রাজনৈতিক মহলে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷ কারণ তিনি নর্থ ইস্ট ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্সের আহ্বায়ক৷ বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের ঘনিষ্ঠ হিমন্ত৷

গুয়াহাটির সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট, দেশদ্রোহিতার অভিযোগ আনা হয়েছে মন্ত্রীরই বিরুদ্ধে৷ এই অভিযোগে থানায় এফআইআর দায়ের করেছে ছাত্র মুক্তি সংগ্রাম পরিষদ৷ সংগঠনটি নাগরিকত্ব সংশোধনীর প্রতিবাদে সামিল৷ এদিকে এই বিলটির প্রতিবাদ করায় আগেই বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও বুদ্ধিজীবী ড. হীরেন গোঁসাই , কৃষক নেতা অখিল গগৈয়ের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার অভিযোগ এনেছিল সরকার৷ পরে তাঁদের জামিন মিলেছে৷

- Advertisement -

বিলের প্রতিবাদে অসম উত্তাল৷ শনিবারেও চলেছে বিক্ষোভ৷ একাধিক কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পঠন-পাঠান বর্জন করেছেন পড়ুয়ারা৷ বিলেরে বিরোধিতা করে তাঁদের পাল্টা দাবি, নাগরিকত্ব সংশোধনী এনে বাংলাদেশ থেকে হিন্দুদের এনে অসমে বসবাস করার রাস্তা বের করেছে কেন্দ্র সরকার ও বিজেপি৷

নাগরিকত্ব সংশোধনীতে বলা হয়েছে, প্রতিবেশী মুসলিম প্রধান দেশগুলি যেমন পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান থেকে অ-মুসলমানরা আবেদন করলেই ভারতের নাগরিকত্ব অর্জন করতে পারবেন৷ এর পরেই অভিযোগ ওঠে, ধর্মনিরপেক্ষতাকে বর্জন করে এনডিএ সরকার সংবিধান বিরোধিতা করছে৷ তারা ধর্মের নামে নাগরিকত্ব প্রদানের পদ খুলে দিচ্ছে৷ অসমের মন্ত্রী তথা উত্তর পূর্বাঞ্চলের অন্যতম প্রধান বিজেপি নেতা হিমন্ত বিশ্বশর্মা নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রবল সমর্থক৷ ফলে তাঁর বিরুদ্ধেই এবার অভিযোগ দায়ের করা হল৷

এর জেরে অসম সহ উত্তর পূর্ব ভারতের সর্বত্র হচ্ছে প্রতিবাদ৷ ত্রিপুরাতে উপজাতিরা বিলের বিরোধিতায় বনধ পালন করছিলেন গত ৮ জানুয়ারি৷ সেই সময় গুলি চালায় পুলিশ৷ এতে জখম হয়েছেন কয়েকজন৷ এর জেরে উত্তাপ আরও ছড়িয়ে পড়েছে উত্তর পূর্বাঞ্চলে৷