দিপালি সেন, কলকাতা: চতুর্থ আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালন করতে চলেছে যাদবপুর ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়৷ বৃহস্পতিবার এনএসএস (ন্যাশনাল সার্ভিস স্কিম) ও শরীরশিক্ষা বিভাগের সঙ্গে মিলিতভাবে এই দিনটি উদযাপনের পরিকল্পনা করেছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়৷ অন্যদিকে, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে শুধুমাত্র এনএসএস-এর পক্ষ থেকেই পালন করা হচ্ছে এই দিনটি৷

প্রতিদিন মানসিক চাপ বাড়ার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে অসুস্থতা৷ সেই অসুস্থতা থেকে মুক্তির উপায় নিয়মিত যোগাভ্যাস৷ প্রাচীন ভারতে উদ্ভূত এক বিশেষ ধরনের শারীরিক ও মানসিক ব্যায়াম এবং আধ্যাত্মিক অনুশীলন প্রথা হল যোগ৷ ২০১৪ সালে ২৭ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী রাষ্ট্রসংঘে ভাষণ দেওয়ার সময় এই দিনটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস ঘোষণা করার প্রস্তাব দেন৷ সেই বছরই ১১ ডিসেম্বর রাষ্ট্রসংঘ সাধারণ পরিষদ ২১ জুন তারিখটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস বলে ঘোষণা করে৷

Advertisement

ঘোষণা অনুযায়ী, ২০১৫ সাল থেকে ২১ জুনে পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস৷ ২০১৮-তে চতুর্থ বর্ষে পা দিল আন্তর্জাতিক যোগ দিবস৷ আর এই দিনটিকে উদযাপন করতে এগিয়ে এসেছে কলকাতা ও যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়৷ যদিও, এই দিনটি পালনের কোনও পরিকল্পনা করা হয়নি রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে৷

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দিবসের অনুষ্ঠান সকাল ১১টায় শরীর শিক্ষা বিভাগে সমাবেশের মধ্য দিয়ে শুরু হবে৷ তারপর, আসনের উপকারিতা নিয়ে মিছিল ও আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের উপর বিশেষজ্ঞদের ভাষণ থাকবে৷ অনুষ্ঠানের অংশ হিসাবে থাকবে যোগ প্রদর্শনী এবং প্রশিক্ষণও৷ এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদেরও দেওয়া হবে সার্টিফিকেট৷ সবশেষে জাতীয় সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে যবনিকা পতন হবে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগ দিবসের অনুষ্ঠানের৷

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবার শুধু এনএসএস থেকেই এই দিনটি উদযাপনের পরিকল্পনা করা হয়েছে৷ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য (অর্থ) মিনাক্ষী রায় জানিয়েছেন, এনএসএস-এর তরফ থেকে কলেজ স্ট্রিট ক্যাম্পাসে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে৷ যেখানে দর্শন বিভাগের একজন অধ্যাপিকা যোগের বিষয়ে ভাষণ দেবেন৷ তিনি আরও জানিয়েছেন, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্ত বিদ্যানগর কলেজে যোগ দিবস অনেক বড় করে পালন করা হয়৷ তাই এদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফ থেকে আধিকারিকরা ওই কলেজে যাবেন৷

তবে, চতুর্থ আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালন করা হচ্ছে না রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে৷ অন্য বছরগুলিতে এনএসএস থেকে যোগ দিবস পালন করা হয়ে থাকে৷ কিন্তু, এই বছর তাদের তরফ থেকেও এই দিনটি উদযাপনের কোনও পরিকল্পনা করা হয়নি৷ কেন এই বছর যোগ দিবস পালন করছে না এনএসএস? রেজিস্ট্রার দেবদত্ত রায় বলেন, ‘‘এখন বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা চলছে৷ আমার মনে হয় যে ছাত্রছাত্রীরা এর পরিকল্পনা করে থাকে, তারা পরীক্ষায় ব্যস্ত রয়েছেন৷’’ এই বছর তাই যোগ দিবস পালনের জন্য কোনও উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না বলেই মনে করছেন তিনি৷

----
--