‘ব্র্যান্ড হল একটা লোগো, যা আমরাই তৈরি করেছি’

‘Trial balance’,’Journal’, ‘Profit and loss’, ‘Balance Sheet’,’Taxation’ ৷ অ্যাকাউন্টসের এইসমস্ত গুরুগম্ভীর বিষয়ে মগ্ন থেকেও র‍্যাম্পে হাঁটা! তাও আবার মিস ইন্ডিয়ার মতো দেশের সবচেয়ে বড় মঞ্চে৷ অবাক লাগলেও তাইই সত্যি করে তুলেছেন নিকিতা বিশ্ত-kolkata24x7-এর  ‘ক্যাম্পাস ফেস-অফ দ্য উইক’৷ দিল্লির কস্ট অ্যাকাউন্টেন্ট নিকিতা ‘মিস ইন্ডিয়া’-র পাশাপাশি নজর কেড়েছেন এবছরের ‘স্টাইল ডিভা’-র মেগা মঞ্চেও৷

অ্যাকাউন্টস থেকে মার্জার সরণি– দুই দুনিয়ার হরেক কথা বললেন নিকিতা৷ শুনল kolkata24x7

nikhita

Photo Courtesy Femina
Photo Courtesy Femina

kolkata24x7: Hi! নিকিতা কেমন আছেন? আপনি এসপ্তাহের ক্যাম্পাস ফেস অফ দ্য উইক৷ শুনেছি পরিবারের লোকজনের সমর্থন সেভাবে না পেলেও একপ্রকার নিজের জেদেই এই গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ আপনার৷ কস্ট অ্যাকাউন্টেন্সি নিয়ে পড়ার সময় হঠাৎ মিস ইন্ডিয়াতে অংশ নেওয়ার কথা মাথায় এল কেন?

- Advertisement -

Nikita: মিস ইন্ডিয়াতে অংশ নেওয়ার ইচ্ছেটা আমার ছোটবেলার থেকেই৷ আপনি আমার বাড়িতে আসলে আপনাকে আমার ‘স্ক্র্যাপবুকস’ গুলো দেখাব৷ যেখানে গত ১০-১২ বছরের মিস ইন্ডিয়া সম্পর্কিত খবরের কাগজে প্রকাশিত প্রচুর প্রতিবেদন, বিভিন্ন contestants-দের details, ছবি ইত্যাদি আরও অনেককিছুই আজও সংরক্ষণ করা আছে৷ এবছর মিস ইন্ডিয়াতে অংশ নেওয়ার আগে বেশ কয়েকমাস আমি সুপারমডেল নয়নিকা চট্টোপাধ্যায়ের কাছে grooming classes-এও যোগ দিয়েছিলাম৷ নয়নিকা ম্যাম-এর থেকে সত্যি আমি অনেক কিছু শিখেছি৷ যা ভবিষ্যতে আমাকে এই ইন্ডাস্ট্রিতে থাকতে হলে প্রতিটা পদেই সাহায্য করবে ৷

kolkata24x7:আপনার hobbies কী? মিস ইন্ডিয়া, স্টাইল ডিভা-র পর আপনার Future planningsকী?

Nikita: থিয়েটার, অভিনয়, মডেলিং, ট্র্যাভেলিং আমার প্যাশন৷ এছাড়া ইংরেজি পপ গান , ট্রান্স মিউজিক শুনতে এবং সিনেমা দেখতে আমার খুব ভালো লাগে৷ আমি অ্যাকাউন্টসের ছাত্রী৷ বাড়িতে সেভাবে সমর্থন না থাকলেও সবসময়েই চেয়েছি অন্যরকম কিছু করতে ৷ পড়াশুনার মাঝে সময় বের করে থিয়েটারটা বরাবরই চালিয়ে গিয়েছি৷ এবার ইচ্ছে ফিল্মে অভিনয় করার৷ তেলেগু এবং বলিউড মিলিয়ে বেশ কয়েকটি ছবির অফার আমার কাছে ইতিমধ্যেই এসেছে৷ ভবিষ্যতে ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেকে একজন প্রতিষ্ঠিত অভিনেত্রী হিসেবে দেখতে চাই৷

Photo- Rahul Dutta & Montu Tomar
Photo- Rahul Dutta & Montu Tomar

kolkata24x7: এসপ্তাহের ক্যাম্পাসের কভার স্টোরি হল ‘ব্র্যান্ড-এ মাতরম’! ব্র্যান্ড বর্তমান সমাজে সেলিব্রিটি থেকে সাধারণ মানুষ, সবার জীবনের সঙ্গেই অঙ্গাঙ্গীভাবে যুক্ত ৷ তোমার কাছে ‘গুড লুকস’ না ‘ব্র্যান্ডেড লুকস’ কোনটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ?

Nikita: ব্র্যান্ডেড লুকস একেবারেই না! একজন মানুষের চিন্তাভাবনা, মন এবং সার্বিকভাবে তিনি কতটা গ্রুমড, তার উপরেই তাঁর গোটা পার্সোন্যালিটি প্রকাশ পায়৷ আপনার মাধ্যমেই একটা পোষাকের সৌন্দর্য শোভা পাবে৷ একটা ব্র্যান্ডের মাধ্যমে কখনই আপনার ব্যক্তিত্ব প্রকাশ পায় না৷ ব্র্যান্ডেড জিনিস কোনওদিন না থাকলেও আমি আমার মতো করে পোষাক পরব৷ ব্র্যান্ড হল একটা ‘চিহ্ন’ বা একটা ‘লোগো’৷ যা মানুষেরই তৈরি৷ আমরাই ব্র্যান্ড তৈরি করেছি৷ ব্র্যান্ড কখনও মানুষ তৈরি করতে পারবে না৷

kolkata24x7: আমেরিকার ৫০টি রাজ্যে সম্প্রতি সমকামী বিবাহকে বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে৷ আপনি কী মনে করেন গোটা পৃথিবীতেই ‘same sex marriage’কে বৈধ ঘোষণা করা উচিৎ?

Nikita: অবশ্যই সমকামী বিয়ে বৈধ হওয়া উচিৎ গোটা বিশ্বে৷ কারণ প্রত্যেকের নিজের মতো করে বাঁচার অধিকার রয়েছে এই পৃথিবীতে৷আমরা একটা গণতান্ত্রিক দেশে বাস করি৷ ভারতেও প্রচুর সমকামি মানুষ রয়েছেন৷ অদ্ভূত আইনের প্যাঁচে পড়ে তারা এখন বিপর্যস্ত৷ এদেশেও সমকামি বিয়েকে তাই যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব বৈধ ঘোষণা করা উচিৎ৷ কারণ আমরা যেমন নিজের ইচ্ছে মতো খাওয়াদাওয়া করি, পোষাক পরি৷ তেমনি একইভাবে নিজের মতো করে জীবনসঙ্গী বেছে নেওয়ার অধিকারও আমাদের রয়েছে৷

kolkata24x7: বর্ষাকালে কলকাতা২৪x৭-এর পাঠকদের কী ফ্যাশন টিপস দেবেন আপনি?

PC: Siddharth Sarkar
Photo: Siddharth Sarkar

Nikita: আমার তো মনে হয় এই ভরা বর্ষায় নিজের জিনসগুলোকে আপনারা সবাই আলমারিতে তুলে রাখুন৷ কারণ ভেজা প্যান্ট পরে নিশ্চয় আপনি থাকতে চাইবেন না৷ এই সময়টাই হল শর্টস পরার আদর্শ সময়৷ আপনি যদি শর্টসে কমফর্টেবল না হন, তাহলে এমন কিছু পড়ুন যা হাঁটুর থেকে চার ইঞ্চি উপরে থাকবে৷ যেমন ডিভাইডেড স্কার্ট৷ যদিও সেটা আপনার বডি টাইপের সঙ্গে মানাচ্ছে কি না, সেব্যাপারে আগে নিশ্চিত হয়ে নিন৷ এছাড়া টপ বাছাইয়ের ক্ষেত্রে আমি মনে করি মনসুনে ‘loose fitted tops’, ‘crop tops’ এবং ‘tank tops’ দারুণ৷ এছাড়া ছাতা বাছাই করাও বর্ষাকালে স্টাইলের একটা গুরুত্বপূ্র্ণ বিষয়৷ গরমকালে গাঢ় রঙের ছাতা ব্যবহার করা ভালো৷ কিন্তু বর্ষাকালে চেষ্টা করুণ হাল্কা প্রিন্টেড ছাতা নিয়ে বেরনোর৷ যখন রাস্তায় বেরবেন তখন চামড়ার ব্যাগ না নিয়ে বেরনোটাই ভালো৷

kolkata24x7:শেষ প্রশ্ন, আপনার বর্তমান রিলেশনশিপ স্টেটাসটা কী? এবং আপনার পছন্দের পুরুষের মধ্যে কী কী গুণগুলি থাকাটা একান্তই দরকার বলে আপনি মনে করেন?

Nikita: Ha Ha! ‘I am single and I am happy’. আমি এমন মানুষকেই ডেট করতে চাইব, যে আমাকে সবচেয়ে ভালো বুঝবে৷ আমার emotions-কে respect করবে৷ এমনটা হলে আমিও তাঁর চিন্তাভাবনা এবং আদর্শকে সম্মান করতে পারব৷ এছাড়া যেকোনও রিলেশনশিপের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টা হল ‘trust’৷ আমার উপর অগাধ আস্থা রয়েছে, এমন মানুষকেই আমি আমার জীবনসঙ্গী হিসেবে দেখতে চাই৷

 

Advertisement
---