রামবান: জঙ্গির পাশাপাশি এবার গরু পাচারকারী৷ উপত্যকায় গরু পাচারকারী সন্দেহে মুসলিম যুবককে গুলি করল সেনা৷ রবিবার ভোর ৪টের সময় রামবান জেলার সীমান্তবর্তী গ্রামে রফিক গুজ্জর নামে ২৮ বছরের যুবককে গুলি করা হয়৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার৷ গুলি চালানোয় আহত হয় রফিকেরই বন্ধু শাকিল আহমেদ৷ সেনা সূত্রে খবর, ২ জনই গরু ব্যবসায়ী৷ যারা গরু পাচার করতে সীমান্তে অনুপ্রবেশ করে৷

৫৮ রাষ্ট্রীয় রাইফেলের সেনা গরু পাচারকারী সন্দেহে ২ যুবককে গুলি করে৷ ভোর ৪টের সময় সীমান্তবর্তী গ্রামে ২ জনকে ঢুকতে দেখে সেনাদের সন্দেহ হয়৷ রামবান থানার সিনিয়র এসপি জানাচ্ছেন, গরু ব্যবসায়ীদের না আটক করে তাদের উপর গুলি চালানোর ঘটনা আইনত অপরাধ৷ তাই গোটা ঘটনার তদন্ত হবে৷ আহত যুবকের বয়ান নিয়ে দায়ের হয়েছে অভিযোগ৷ রামবানের কোহলি গ্রামে ব্যবসার কাজে এসেছিল তারা বলে পুলিশকে জানায় আহত শাকিল৷ তবে শাকিল কোহলি গ্রামেরই বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে৷

অবশ্য, অবস্থা সঙ্গীন দেখেই গুলি চালানো হয় বলে জানাচ্ছে সেনা৷ দুই যুবকেরই কার্যকলাপ সন্দেহজনক ছিল৷ না গুলি করলে হয়ত সেনার উপরই হামলা চলত৷ দুই গরু ব্যবসায়ীকে ভোররাতে গ্রামে ঢুকতে দেখেই সেনার সন্দেহ হয়৷ কর্তব্যরত অবস্থায় গুলি করাটাই যুক্তিযুক্ত ছিল বলে জানাচ্ছে সেই সময়ের দায়িত্বে থাকা সেনারা৷  গরু চোর বা গরু ব্যবসা রুখতে উপত্যকায় জারি হয়েছে নানা নিয়ম৷ গোরক্ষকদের নিয়ন্ত্রণে আনতেও প্রশাসনের তরফে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে৷ সেনার বক্তব্য, সমস্ত তথ্য জেনেই দুই যুবককে গুলি করা হয়েছে৷

----
--