নেশা করতে বাজারে আসছে ‘মহুয়া’! Test করবেন নাকি?

নয়াদিল্লি: আর রাখ ঢাক নেই৷ আদিবাসী গ্রামগুলির ঐতিহ্যের মহুয়া এবার বাজারে৷ রীতিমত প্যাকেটিং করা বোতেল বিক্রি করা হবে মহুয়া৷ এমনই সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র৷ আদিবাসী উন্নয়ন মন্ত্রক সূত্রের খবর, আদিবাসীদের ঐতিহ্যের পানীয়কে মর্যাদা দিতেই এই উদ্যোগ৷ বিভিন্ন আনুষ্ঠানেও মহুয়ার প্রবেশ অবাধ৷

শুধুই পানীয় নয় মহুয়ার মোরোব্বা, জেলি জ্যামস তৈরিতেও বিশেষ উদ্যোগ নিচ্ছে মন্ত্রক৷ মহুয়ার রসের সঙ্গে আদা, আজওয়ান মিশিয়ে তৈরী হবে বিশেষ পানীয়৷ মহুয়া রসের সঙ্গে অন্যান্য উপাদানের সংযোজন স্বাদ আরও বাড়াবে৷ জ্যাম,জেলি, বা পানীয় ব্র্যান্ড নাম কিন্তু ‘মহুয়া’৷ আদিবাসী উন্নয়ন মন্ত্রকের ভন ধন প্রকল্পের মধ্যে পড়ছে এই মহুয়া পরিকল্পনা৷

দেশজুড়ে বিক্রি হবে মহুয়া৷ মধ্যপ্রদেশ,ওড়িশা,ছত্তিশগড়, ঝাড়খণ্ডে সবচেয়ে বেশি মহুয়া-র পানীয় ও অন্যান্য উপাদান বিক্রি করা হবে৷ মহুয়া প্রকল্পের জন্য কেন্দ্র
বরাদ্দ করেছে ৫০০ থেকে ৬০০ কোটি টাকা৷ অবশ্য মহুয়ার পানীয় ছাড়া জ্যাম, জেলিতে অ্যালকোহলের কোনও উপাদানই থাকবে না৷ মহুয়া বাজারে আসলে গ্রামীণ শিল্পও মর্যাদা পাবে বলে মনে করা হচ্ছে৷ আদিবাসী গ্রামেই মৌ গাছের রস থেকে তৈরী হয় মহুয়া৷ যা নানা পদ্ধতিতে সুস্বাদু করে তোলে আদিবাসী গ্রামগুলির বাসিন্দারা৷ মহুয়া বাজারে এসে রক্ষা পাবে গ্রামীণ শিল্পও৷ আর সেই কারণেই এই সাধু উদ্যোগ বলে জানাচ্ছে আদিবাসীন উন্নয়ন মন্ত্রক৷

Advertisement ---
---
-----