অশনি সঙ্কেত! গভীর রাতে চিনা কৃত্রিম দ্বীপে ঢুকে পড়ল মার্কিন যুদ্ধবিমান

ওয়াশিংটন: চিনাদের বানানো কৃত্রিম দ্বীপ নিয়ে আমেরিকা ও লালচিনের মধ্যে সম্পর্ক দিন কে দিন ঘোরাল হয়ে উঠছে। পরিস্থিতি সরজমিনে দেখতে গভীর রাতে মার্কিন নৌবহরের একটি ডেস্ট্রয়ার দক্ষিণ চিন সাগরে ঢুকেছে।  মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগকে উদ্ধৃত করে এই খবর নিউ ইয়র্ক টাইমসের।

জানা গিয়েছে, ল্যাসেন নামের গাইডেড মিসাইলবাহী ডেস্ট্রয়ারটি কৃত্রিম দ্বীপের ১২ নটিক্যাল মাইলের মধ্যে ঢুকে পড়েছে। মার্কিন নৌবাহিনী স্পষ্টতই জানিয়েছে, যেহেতু ওই জলসীমা বিতর্কিত, তাই চিনা নৌবাহিনীকে অগ্রিম সে খবর প্রয়োজন তারা বোধ করেনি। অর্থাৎ, এই কৃত্রিম দ্বীপ নিয়ে বেজিংকে এবার সরাসরি একটি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিল ওবামা প্রশাসন৷

চিন সাগরে ঢুকে পড়ার এই ঘটনায় কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে বেজিং। চিনের সরকারি সংবাদ মাধ্যম সিসিটিভিকে দেওয়া এক প্রতিক্রিয়ায় চিনা বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই-র হুঁশিয়ারি, “যে কোনও বেপরোয়া সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে দু’বার ভাবুন।” সেই হুঁশিয়ারি উড়িয়ে দিয়ে মার্কিন প্রতিরক্ষা মুখপাত্র জন কারবি বলেছেন, “আন্তর্জাতিক জলসীমায় মহড়া চালাতে কারও কাছে অনুমতি চাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।”

- Advertisement -

ভারত-মার্কিন-জাপান নৌ-মহড়ায় ভয় পেল চিন

ঘটনা হল, দক্ষিণ চিন সাগর ও পূর্ব চিন সাগরের একটি বড় তল্লাট বহুদিন ধরেই নিজেদের জলসীমা বলে দাবি লালচিনের। বস্তুত সেই মাও সে তুংয়ের সময় থেকে৷

Advertisement ---
---
-----