প্রতিকি ছবি৷ ছবির সঙ্গে প্রতিবেদনের কোন সম্পর্ক নেই৷ প্রতিবেদনের ছবিটি একটি বাংলা সিনেমা থেকে নেওয়া

নিউইয়র্ক: ক্যারোলেট এলিজাবেথ ফ্লেয়ার বললে ফ্যানেরাও সম্ভবত চিনতে পারবেন না৷ ক্যারোলেট নামেই তিনি পরিচিত৷  রিং কাঁপানো বছর ৩০ লাস্যময়ী রেসলার এখন খবরের শিরোনামে৷ পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন রীতিমতো বিপাকে৷ তাঁর ফোনটি হ্যাকড হয়েছে৷ হ্যাকারদের কেরামতিতে তাঁর ন্যুড ছবি  এখন সবার হাতে ৷

কী রয়েছে ক্যারোলেটের মোবাইলে? কী নেই সেখানে! বিনোদনের যাবতীয় রসদ সেখানেই৷ তাই একপ্রকার বাধ্য হয়ে টুইট করেন ক্যারোলেট,‘আমার ব্যক্তিগত ছবি কেউ হ্যাক করেছে৷ আমার অনুমতি ছাড়া এটা যে করেছে সে অত্যন্ত বাজে কাজ করেছে৷’

যদিও ‘নেগেটিভ পাবলিসিটি’ বলেও একটা ব্যাপার থাকে! বেশ কয়েকদিন আগেই দু’বারের চ্যাম্পিয়ন পেজেরও ফোন হ্যাক করে তার কিছু ব্যক্তিগত ভিডিও ও ছবি শেয়ার করে দিয়েছিল হ্যাকাররা৷

--
----
--