অমানবিক! চোখে পেরেক নিয়ে পাঁচ সরকারি হাসপাতালের দরজায় ঘুরল শিশু

কলকাতা: ফের সরকারি হাসপাতালে অমানবিকতার দৃশ্য৷চোখে পেরেক ঢুকে যাওয়া অবস্থায় বছর আটেকের একটি শিশুকে ঘুরতে হল পাঁচটি হাসপাতালের দরজায়৷ শেষ পর্যন্ত এনআরএস হাসপাতাল শিশুটির চোখের অস্ত্রোপচার করেছে৷

শনিবার চোখে পেরেক ঢুকে গিয়ে গুরুতর জখম হয় বছর আটেকের পরিমালি মোল্লা৷ দুর্ঘটনার পরই দক্ষিণ ২৪ পরগণার জীবনতলার বাসিন্দা পরিমালি মোল্লাকে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে আসে তার পরিবার৷ বাড়ির লোকেদের অভিযোগ, রাজ্যের সুপারস্পেশালিটি হাসপাতাল পরিমালির থেকে মুখ ফেরায়৷ সটান রেফার করে দেয় অন্য হাসপাতালে৷ এরপর বাঙুর নিউরোলজি, মেডিক্যাল কলেজ, চিত্তরঞ্জন ও এনআরএস হাসপাতাল প্রত্যেকেই রেফার করে দায় সারে৷ শেষপর্যন্ত সংবাদমাধ্যমের চাপে পরে এনআরএস হাসপাতাল শিশুটিকে ভরতি নিয়ে অস্ত্রোপচার করে৷

পারিমলের বাবা বলেন, ভাল চিকিৎসার আশা নিয়ে কলকাতায় আসি আমরা৷ কিন্তু সরকারি হাসপাতালগুলোই যদি আমাদের মতো গরীব মানুষের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয় তাহলে কোথায় যাব? চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, পারিমল এখন অনেকটাই সঙ্কটমুক্ত৷

- Advertisement -

কিছুদিন আগেই বেসরকারি হাসপাতালগুলোর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করার পাশাপাশি সরকারি হাসপাতালগুলোকেও রেফার করার ব্যাপারে সতর্ক করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশও যে সরকারি হাসপাতালগুলি হেলায় উড়িয়ে পারে তার টাটকা প্রমাণ মিলল পরিমলের ঘটনায়৷

Advertisement
---