ভারতকে চ্যালেঞ্জ? একই দিনে মিসাইল পরীক্ষা করল চিন

বেজিং: নিজের ভূখন্ডে মিসাইল পরীক্ষা করল চিন৷ সেদেশের সরকারি সূত্রে জানানো হয়েছে মিসাইল পরীক্ষা সফল৷ ভারত যেদিন অগ্নি ১ ব্যালেস্টিক মিসাইল পরীক্ষা করল, সেইদিনই চিনও তাদের দেশে মিসাইল পরীক্ষা করল৷ তাহলে কি ভারতকে চ্যালেঞ্জ জানাতেই একই দিনে মিসাইল পরীক্ষা করল চিন? চিনের তরফ থেকে কিন্তু এই অভিযোগ নস্যাৎ করে দেওয়া হয়েছে৷ সেদেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে, মিসাইল পরীক্ষা করার কথা গতকালই ঘোষণা করেছিল চিন৷

চিনের সংবাদমাধ্যমের তরফে জানানো হয়েছে, কোনও দেশের দিকে তাক করে মিসাইল নিক্ষেপ করা হয়নি৷ পৃথিবীর বায়ুমন্ডলের বাইরে এই মিড-কোর্স গ্রাউন্ড মিসাইল ছোঁড়া হয়েছে৷

দক্ষিণ কোরিয়ায় আমেরিকার টার্মিনাল হাই অ্যালটিটিড এরিয়া ডিফেন্স (THAAD) মিসাইলের বিরোধিতা করেছিল চিন৷ রাশিয়াও THAAD মিসাইলের বিরোধিতা করেছিল৷ চিন এও বলেছিল THAAD মিসাইলের শক্তিশালী ব়্যাডার সেদেশের মিসাইল পর্যবেক্ষণ করতে পারবে৷ দক্ষিণ চিন সাগরের একটি দ্বীপে অন্যদেশের মিলিটারি রাখার বিরোধিতা করে বেজিং৷ কিন্তু চিনের তরফে জাপানের কাছাকাছি পূর্ব চিন সাগরে কোস্ট গার্ড ভেসেল রাখা হয়৷

- Advertisement -

২০১০ সালে মিড কোর্সের গ্রাউন্ড বেস মিসাইল পরীক্ষা করেন জাপান৷ ২০১৩ সালে হয় দ্বিতীয় পরীক্ষা৷ চিনের তরফ থেকে জানানো হয় নিজের দেশের সুরক্ষার জন্য তারা মিসাইল পরীক্ষা করছে৷

Advertisement ---
---
-----