মার্কিন বিমানে নজর রাখতে এবার ‘স্পাই প্লেন’ ওড়াবে চিন

বেজিং: মাঝ সমুদ্রে শত্রুদের যুদ্ধজাহাজে নজর রাখতে নতুন ‘সারভিলিয়েন্স প্লেন’ তৈরি করছে চিন। সেদেশের এয়ারক্রাফট কেরিয়ার থেকে ওড়ানো হবে ওই নজরদারি বিমান। চিনের সংবাদমাধ্যমের তরফে জানানো হয়েছে, KJ-600 নামে ওই বিমান তৈরি করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে প্রস্তুতি।

কিছুদিন আগেই জাপানের সেনা ঘাঁটিতে F-35 বিমান মোতায়েন করেছে আমেরিকা। তারপরই চিনের তরফ থেকে এই গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করা হল। কারণ, আমেরিকা ওই বিমান মোতায়েন করে চিনের এয়ার ডিফেন্সকে কার্যত চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে আমেরিকা।

আরও পড়ুন: চিনের একেবারে কানের পাশে কামান দাগবে ভারত

- Advertisement -

চিন জানিয়েছে, KJ-600 বিমানে থাকবে এক বিশেষ ধরনের র‍্যাডার। সেই র‍্যাডারে স্টিলথ এয়ারক্রাফটের অবস্থানও ধরা পড়বে সহজেই। মার্কিন যুদ্ধবিমান F-22s বা F-35s-এও নজর রাখতে পারবে চিনের র‍্যাডার।

বেজিং-এর সামরিক বিশেষজ্ঞ লিং জি জানিয়েছেন, মাঝ আকাশে কমান্ড সেন্টার হিসেবেও ব্যবহৃত হতে পারে চিনের এই নতুন বিমান। অনেক দূরে থাকা এয়ারক্রাফটও খুঁজে বের করতে পারবে এটি। এই বিমান মোতায়েন করা হলে চিনের সামরিক দক্ষতা বাড়বে বলে মনে করছেন তিনি। চিনের তৃতীয় এয়ারক্রাফট কেরিয়ারে রাখা হবে এই বিমানকে। ওই এয়ারক্রাফট কেরিয়ার বর্তমানে সাংহাইতে তৈরি হচ্ছে। এতে রয়েছে ইলেকট্রোম্যাগনেটিক লঞ্চ সিস্টেম।

আরও পড়ুন: ৯০০০ মর্টার শেল ছুঁড়ে পাকিস্তানের কোমর ভাঙল ভারতীয় সেনা

২০১৭-র এপ্রিলে দ্বিতীয় এয়ারক্রাফট কেরিয়ার তৈরি লঞ্চ করে চিন। ২০৩০-এর মধ্যে চিনের ঘরে চারটি এয়ারক্রাফট কেরিয়ার থাকবে বলে সূত্রের খবর। সেগুলি নিয়ে দক্ষিণ চিন সাগর ও ভারত মহাসাগরেও আনাগোনা করবে চিন।

Advertisement ---
-----