মসনদে ইমরান আসতেই পাকিস্তানকে ২০০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে চিন

ইসলামাবাদ:  ফের পাকিস্তানের পাশে বন্ধু হিসাবে দাঁড়াল চিন। ইসলামাবাদকে দ্রুত ২০০ কোটি ডলার ঋণ দিতে রাজি হয়েছে চিন। আর কয়েকদিন বাদেই প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন ইমরান। আর তার আগে বেজিংয়ের এই পদক্ষেপ যেমন পাকিস্তানের দ্রুত অবনতিশীল মুদ্রা বাজার নিয়ন্ত্রণ করবে, তেমনি নতুন সরকারের জন্য এক রকমের স্বস্তি বয়ে আনবে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহালমহল।

পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও অর্থ মন্ত্রকের বিভিন্ন সূত্র জানাচ্ছে, এই ২০০ কোটি ডলার ঋণ পেলে তা বৈদেশিক মুদ্রার তহবিলকে মোটাতাজা করে তুলবে। শুধু তাই নয়, রিজার্ভ এক হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়ে যাবে। চলতি সপ্তাহের পথম দিকে পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক জনিয়েছিল, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৯০০ কোটি ডলারের নিচে নেমে গিয়েছে। রিজার্ভে ২০০ কোটি ডলার যোগ হলে তা পাকিস্তানের দুই মাসের আমদানি ব্যয় মেটানোর ব্যবস্থা করবে। যদিও পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রক এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেনি। তবে দেশের শীর্ষ এক আধিকারিক জানিয়েছেন, একটি বন্ধুপ্রতীম দেশ ২০০ কোটি ডলার ঋণ দিতে রাজি হয়েছে। চিনের এই ঋণ সহায়তা পাকিস্তানি মুদ্রার ওপর চাপ কমাবে।

এদিকে, পাকিস্তানকে এই ঋণ দেওয়ার মাধ্যমে নতুন সরকারের সঙ্গে চিন তার বন্ধুত্ব ও কর্তৃত্ব ধরে রাখার পথ বেছে নিল বলে মনে করা হচ্ছে। চিন হচ্ছে পাকিস্তানের আঞ্চলিক মিত্র দেশ এবং পাকিস্তানের ভেতরে বহু প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে বেজিং।

Advertisement ---
-----