ভারতের মাটিতে ৬ কিলোমিটার ঢুকে এসেছিল চিন: ITBP

নয়াদিল্লি: ফের ভারতের অন্দরে চিনের অনুপ্রবেশের খবর প্রকাশ্যে এল। গত মাসেই নাকি ভারতের সীমান্তের এপারে ৬ কিলোমিটার পর্যন্ত ঢুকে গিয়েছিল চিন। এক রিপোর্টে এমনটাই জানাল আইটিবিপি। মার্চ মাসে লাদাখ অঞ্চলে হয়েছিল চিনা অনুপ্রবেশ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে একটি রিপোর্ট জমা দিয়েছে আইটিবিপি। তাতেই চিনের অনুপ্রবেশের এই খবর জানানো হয়েছে। চিনের সেনা ভারতের সীমান্ত পেরিয়ে ৬ কিলোমিটার পর্যন্ত চলে এসেছিল বলে উল্লেখ করা হয়েছে সেই রিপোর্টে। তবে আইটিবিপি জওয়ানদের তাড়ায় ফিরে যেতে বাধ্য হয় চিনের সেনা।

আরও জানা গিয়েছে, লাদাখের প্যাংগং লেকের কাছে তিনবার চিনা বাহিনী অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালিয়েছে। গত চার মাসেও একাধিকবার ঘটেছে একই ঘটনা। এবছরের ২৭ ফেব্রুয়ারি, ৬ মার্চ ও ৯ মার্চ গাড়িতে চেপে ঢোকার চেষ্টা করে তারা। শুধুমাত্র লাদাখ নয়, অরুণাচলেও প্রবেশের চেষ্টা করেছে চিন।

- Advertisement -

কিছুদিন আগেই অরুণাচল প্রদেশের অফসিলা অঞ্চলে তৈরি হয়েছে সমস্যা৷ ওই অঞ্চলে ভারতীয় সেনার পেট্রলিংকে নিয়ে মন্তব্য করেছে চিন৷ তারা বলেছে ভারতের জওয়ানরা নাকি সীমারেখা অতিক্রম করেছে৷ চিন দাবি করেছে অফসিলা অঞ্চল নাকি তাদের সীমারেখার অন্তর্গত৷ চিনের এই দাবি ভারতীয় সেনা পুরোপুরি খারিজ করে দিয়েছে৷

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে এই বিষয়টি ওঠে ১৫ই মার্চ বর্ডার পার্সোনেল মিটিংয়ে৷ তখনই ভারতীয় সেনা সেই অভিযোগ বাতিল করে দেয়৷ এই বৈঠকটি হয় চিনের দিকে কিবিথু এলাকার দইমাই পোস্টে৷ ভারতীয় সেনা সেদিনই চিনের এই দাবিকে খারিজ করে দেয়৷ ভরতের তরফে বলা হয় অফসিলা অঞ্চল অরুণাচল প্রদেশের সুবনসিরী অঞ্চলের একটি অঙ্গ৷ ভারতীয় সেনা এই অঞ্চলে এই প্রথম নয় আগে থেকেই টহল দিয়ে আসছে৷ সূত্র মারফত এও খবর মিলেছে, চিন অফসিলা এলাকায় ভারতের পেট্রলিংকে ‘অনুপ্রবেশ’ আখ্যা দিয়েছে৷ এরপরই ভারত তার কড়া ভাষায় আপত্তি করা হয়েছে৷

Advertisement ---
---
-----