করাচিঃ  পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক আরও গভীর করতে চায় চিন। আর সেই কারনেই পাকিস্তান সফরে গেলেন চিনা বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই। মূলত পাকিস্তান এবং চিনের মধ্যে সম্পর্ক আরও মজবুত আগামী তিনদিন ইসলামাবাদেই থাকবেন চিনা মন্ত্রী। সেই সময়ে ইমরান সরকারের একাধিকমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। প্রসঙ্গত, আমেরিকার সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্কে যখন বড় রকমের টানাপড়েন চলছে তখন চিন ইসলামাবাদের সঙ্গে সম্পর্ক আরও গভীর করার উদ্যোগ নিয়েছে, এমনটাই মত রাজনৈতিকমহলের।

ইসলামাবাদ পৌঁছে ওয়াং ই শনিবার পাক বিদেশমন্ত্রী মেহমুদ কোরেশীর সঙ্গে বৈঠকে করেছেন। বৈঠক শেষে ওয়াং ই সংবাদ সম্মেলনে বলেন, পাকিস্তানের জন্য কোনও রকমের বোঝা না হয়ে বরং চিন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডর নজিরবিহীন সমৃদ্ধি নিয়ে আত্মপ্রকাশ করবে। চিন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডর সম্পর্কে অবনতি হয়েছে।

Advertisement

এমনটাই সম্ভাবনার কথা নাকচ করে চিনা বিদেশমন্ত্রী বলেন, এই প্রকল্প থেকে লাভবান হওয়ার জন্য দু পক্ষ অগ্রাধিকারগুলো পুনর্বিন্যাস করতে রাজি হয়েছে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে পাকিস্তানের ওপর কোনও ভাবেই ঋণের বোঝা চাপিয়ে দেওয়া হয়নি। তিনি বলেন, এই প্রকল্প যখন শেষ হবে এবং চালু হয়ে যাবে তখন তা বিশাল অর্থনৈতিক লাভ বয়ে আনবে। পাকিস্তানের অর্থনীতির জন্য উল্লেখযোগ্য সুবিধা দেবে।

চিন হচ্ছে পাকিস্তানের দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র এবং গত কয়েক বছরে বিভিন্ন পরিকাঠামোর উন্নয়নে ব্যাপক অর্থনৈতিক বিনিয়োগ করেছে।

----
--