দেশের প্রাকৃতিক আবহাওয়া বদলাচ্ছে চিন! সতর্ক ভারত

গুয়াহাটি: তিব্বতের মালভূমিতে বেশি বৃষ্টি চাইছে চিন৷ এই কারণে তারা নাকি আবহাওয়ায় কিছু পরিবর্তন আনতে চলেছ৷ সম্প্রতি একটি রিপোর্টে এই খবর প্রকাশ পেয়েছে৷ আর এর ফলে উদ্বেগ বাড়ছে নদীতীরবর্তী অসমে৷

প্রতি বছর অসমের অর্থনীতির উপর প্রভাব ফেলে বন্যা৷ এলাকার মানুষের জীবনযাত্রা ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷ রাজ্যের অর্থমন্ত্রী হেমন্ত বিশ্ব শর্মা জানিয়েছেন, তিব্বতের স্বাভাবিক ইকোসিস্টেমের পরিবর্তন করতে চাইছে চিন৷ এমন হলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে অসম ও অরুণাচল প্রদেশ৷ কেন্দ্রীয় বিদেশ মন্ত্রককে তিনি অনুরোধ জানিয়েছেন তারা যেন বিষয়টির দিকে মনোনিবেশ করে৷ দরকার পড়লে যেন চিনের সঙ্গে কথাবার্তা বলা হয়৷ তাদের সহায়তার জন্য বোঝানো হয়৷

গত বছর বন্যায় ভেসে গিয়েছিল অসম৷ রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছিল অত্যধিক বৃষ্টির ফলেই বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে৷ বন্যা তৃতীয় স্তর ছাপিয়ে গিয়েছিল৷

- Advertisement -

কেন্দ্রীয় বিদেশ মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, গত বছর ব্রহ্মপুত্র ও সুতলেজে চিনা কোনও হাইড্রোলজিক্যাল ডেটার সন্ধান পাওয়া যায়নি৷ এই দুটি নদী দুই দেশের মধ্যে দিয়েই বয়ে চলেছে৷ এনিয়ে ভারত ও চিনের মধ্যে দ্বিপার্শিক একটি চুক্তিও হয়েছে৷ বুধবার চিন ভারতের সঙ্গে তথ্য আদানপ্রদান করবে বলে জানায়৷ গত বছর ডোকালামে মিলিটারি স্ট্যান্ড অফের পর এটি চিন ও ভারতের প্রথম তথ্য আদানপ্রদান৷

Advertisement ---
---
-----