সিওল: গোপনে চিনে ঘুরে গেলেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন। এবার তাঁর আমন্ত্রণ গ্রহণ করে যাবেন চিনের প্রেসিডেন্ট জি জিংপিং। প্রথমবার কিম জং-এর এই সফরের পর এমনটাই জানিয়েছে উত্তর কোরিয়ার সংবাদমাধ্যম।

জানা গিয়েছে, দেশটির সরকারের তরফ থেকে চিনের প্রেসিডেন্টকে পিয়ংইয়ং-এ আমন্ত্রণ জানিয়েছেন কিম জং উন। উপযুক্ত সময়ে সফরের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। সেই আমন্ত্রণ চিন আনন্দের সঙ্গে গ্রহণ করেছে বলে খবর।

Advertisement

প্রথম বিদেশ সফর হিসেবে চিনকে বেছে নিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট। বেজিং-এ এসে কিম জং বলেন, রাষ্ট্রপতি হিসেবে প্রথম বিদেশ সফরে চিনে আসাটাই তাঁর দায়িত্ব।

একসময় বন্ধুত্ব থাকলে, সম্প্রতি কিছুটা চিড় ধরেছিল চিন ও উত্তর কোরিয়ার সম্পর্কে। রাষ্ট্রসংঘের নিষেধাজ্ঞায় চিন সম্মতি দেওয়াতেই তিক্ত হয় সম্পর্ক। উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্র ও মিসাইলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে রাষ্ট্রসংঘ।

গত রবিবার বেজিং-এ যান কিম জং উন। এটা কোনও অফিশিয়াল সফর নয় বলেই জানিয়েছে উত্তর কোরিয়া।

একটি বিশেষ ট্রেন কিমকে উত্তর পূর্ব চিনের সীমান্তে নিয়ে আসে৷ সেখান থেকেই চিনে প্রবেশ করেন উত্তর কোরিয়ার এই সুপ্রিম লিডার৷ একটি টেলিভিশন চ্যানেলে ট্রেনের ছবিও দেখানো হয়েছে৷ দেখা গিয়েছে কিমের বাবা যে ট্রেনটি ব্যবহার করতেন, এটি হুবহু তেমনই দেখতে৷ ২০১১ সালে মৃত্যুর আগে কিম জং উনের বাবা কিম জং ইল এই ট্রেনে চেপেই চিন সফরে এসেছিলেন৷

এমাসেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা করার কথা কিমের৷ দক্ষিণ কোরিয়া জানিয়েছে, পারমাণবিক শক্তি নিয়ে মার্কিন মুলুকের সঙ্গে মুখোমুখি আলোচনায় বসতে চায় উত্তর কোরিয়া৷ আমেরিকার কূটনীতিবিদরাও সেই আলোচনাসভায় উপস্থিত থাকবেন বলে খবর৷

----
--