স্টাফ রিপোর্টার, বহরমপুর: চিনা-মাদক কাণ্ডে একটি ফ্ল্যাট করল সিল করল সিআইডি৷ মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের রানিবাগান এলাকায় ওই ফ্ল্যাট৷

সিআইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই ফ্ল্যাটে থাকতেন মালিক তুষার আগরওয়াল নামে এক ব্যক্তি৷ তার সঙ্গে চিনা নাগরিকদের যোগাযোগ রয়েছে৷

আরও পড়ুন: শহরে চেজ-বক্সিংয়ের বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপ

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রানিবাগান এলাকায় একটি ফ্ল্যাটে স্ত্রী ও দুই কন্যা সন্তান নিয়ে থাকতেন এক অবাঙালি ব্যক্তি৷ আর আরেকটি ঘরে মাকে নিয়ে থাকতেন আরেকজন। তাঁরা প্রতিবেশীদের সঙ্গে কথা কম বলতেন৷ যে সব কথা হত তা তাঁরা হিন্দিতে বলতেন।

গত ১০ থেকে ১২ দিন ধরে ওই ফ্ল্যাটে আর কেউ থাকে না৷ তা থেকেই স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে চাপা গুঞ্জন শুরু হয়েছে৷ যা পরিষ্কার হল বুধবার৷ যখন সিআইডির দল হানা দিল ওই ফ্ল্যাটে৷

আরও পড়ুন: কবিগুরুর শেষ প্রস্থানের দিন এলেই বিষাদ ছড়ায় শান্তিনিকেতনে

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি কলকাতা থেকে পাঁচ জন চিনের নাগরিক গ্রেফতার হয় সিআইডির হাতে৷ তাদের কাছ থেকে চিনা মাদক উদ্ধার হয়৷ তদন্তে নেমে সিআইডি মুর্শিদাবাদের নওদায় একটি কারখানার হদিশ পায়৷ যেখানে চারকোল তৈরি হত বলে জানতেন স্থানীয় মানুষ৷ কিন্তু সিআইডি গিয়ে দেখে সেখানে মাদক তৈরির কারখানা খুলেছিল চিন৷

এবার ওই চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে গেল বহরমপুরের নাম৷ মঙ্গল ও বুধবার পরপর দুদিন রানিবাগান এলাকায় একটি ফ্ল্যাটে হানা দেয় সিআইডির প্রতিনিধি দল। ঘর দুটি সিল করে দেওয়া হয়। যদিও এবিষয়ে কোনও তথ্য জানাতে চাইনি সিআইডি প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসতেই হতবাক ওই আবাসনের বাসিন্দারা।

আরও পড়ুন: খোরপোশের ২৪,৬০০টাকা খুচরো কয়েনে! ক্ষোভে ফেটে পড়লেন মহিলা

----
--