বাজেট নিয়ে বিবাদে কর্ণাটকের দুই জোট শরিক

বেঙ্গালুরু: বাজেটকে কেন্দ্র করে ফের প্রকাশ্যে চলে এল কর্ণাটকের শাসক জোটের বিবাদ। সমস্যা সমাধানের জন্য আসরে নামতে হল জেডি(এস) নেতা তথা দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবগৌড়াকে।

আরও পড়ুন- ‘গরুর গাড়ি’ কংগ্রেসের অধিকাংশ নেতা জামিনে মুক্ত: মোদী

চলতি সপ্তাহের বৃহস্পতিবার পেশ হয়েছে কর্ণাটকের কংগ্রেস-জেডি(এস) জোটের বাজেট। কৃষকদের জন্য বিপুল পরিমাণ ঋণ মুকুব করে দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। ৩৪ হাজার কোটি টাকা ঋণ মুকুব করলেও বেশ কিছু জিনিসের উপরে কর চাপানো হয়েছে। যার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে পেট্রো পণ্য।

এই বাজেট ঘিরে অনেক আগে থেকেই বিরোধ চলছিল কংগ্রেস এবং জেডি(এস)-র মধ্যে। অনেক সময়েই তা প্রকাশ্যেও চলে আসে। বাজেট পেশ হওয়ার পরে তা আরও জোরাল হয় প্রবীণ কংগ্রেস নেতা এইচ কে পাটিলের বক্তব্যে।

আরও পড়ুন- ‘হিন্দুদের অপমান করছেন নীতীশ কুমার’

কর্ণাটকের জোট সরকারের প্রথম বাজেট ভালো হয়নি। বাজেটে সংখ্যালঘু শ্রেণির উন্নয়নের জন্য নাকি বিশেষ কিছুই করা হয়নি। এমনই মন্তব্য করেন উত্তর কর্ণাটকের কংগ্রেস নেতা এইচ কে পাটিল। তাঁর দাবি, “২০১৮ সালের বিধানসভা নির্বাচনে আমাদের জয়ের অন্যতম বড় হাতিয়ার ছিল সংখ্যালঘু সম্প্রদায়। বাজেটে তাদের উন্নয়নের জন্য কিছু অন্তত ঘোষণা করা উচিত ছিল। কিন্তু সেই রকম কিছুই হয়নি।”

আরও পড়ুন- মন্ত্রীর হুকুমে খাবার পরিবেশন করে বিতর্কে আধিকারিকরা

প্রবীণ কংগ্রেস নেতা তথা শরিক দলের বিধায়কের বক্তব্যের জবাবে মুখ খুলেছেন জেডি(এস) নেতা তথা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবগৌড়া। পাশে দাঁড়িয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী পুত্র এইচ ডি কুমারস্বামীর। তিনি বলেছেন, “বাজেটের বিষয়ে বিধানসভার মধ্যেই যাবতীয় জবাব দেবেন মুখ্যমন্ত্রী। তারপরেই সন্দেহের সব মেঘ কেটে যাবে।”

----
-----