১০০ দিনের কাজে সেরা বাংলা, গর্বিত মুখ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ১০০ দিনের কাজে ফের সেরার শিরোপা পেল বাংলা৷ তবে এই প্রথম নয়৷ পরপর তিনবার রাজ্যের মাথায় উঠল এই সেরার মুকুট৷ শুধু তাই নয়, কেন্দ্রের রিপোর্ট অনুযায়ী, অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় বাংলায় সবচেয়ে বেশি কর্মসংস্থান হয়েছে৷ আপার বাগডোগরা পঞ্চায়েতে সবচেয়ে বেশি কর্মসংস্থান হয়েছে বাংলার মধ্যে৷ আবার জল সংরক্ষণেও দেশের মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বাংলা৷

এই খবরে মূলত, কেন্দ্রের ‘সেরার’ স্বীকৃতিতে উচ্ছ্বসিত মমতা৷ শনিবারই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে জানিয়েছেন, ‘‘আমি খুব খুশি ১০০ দিনের কাজে আবার সেরা হল বাংলা৷ বাংলার জন্য আমি গর্ববোধ করছি৷’’

পূর্ব বর্ধমান ও কোচবিহার জেলা দুটি ১০০ দিনের কাজে রাজ্যের মধ্যে শীর্ষস্থান অধিকার করেছে৷ এই জেলা দুটিতেই মূলত ভালো কজ হয়েছে বলে জানানো হয়েছে৷ ১০০ দিনের কাজ নিয়ে এলাকায় তেমন অভিযোগও নেই শ্রমিকদের মধ্যে৷ বরং রাজ্যের এই প্রকল্পে উপকৃত হয়েছেন বহু গ্রাম্য মানুষ৷ খেয়ে পড়ে বেঁচে গিয়েছে তাদের সংসার৷

- Advertisement -

কেন্দ্রের প্রকাশ করা রির্পোট অনুযায়ী, আপার বাগডোগরা গ্রাম পঞ্চায়েতে হয়েছে সবচেয়ে বেশি কর্মসংস্থান৷ বেশি কর্মসংস্থানের কারণে দেশের মধ্যে নাম উঠে এসেছে এই পঞ্চায়েতটির৷ এই ছোট্ট পঞ্চায়েত এলাকায় সবচেয়ে বেশি ঘর মানুষ ১০০ দিনের কাজ করে উপকৃত হয়েছেন৷

তবে শুধু ১০০ দিনের কাজ বা সর্বাধিক কর্মসংস্থানই নয়, জল সংরক্ষণেও দেশের মধ্যে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে বাংলা৷ বিরোধীদের হাজারো অভিযোগকে উড়িয়ে শেষপর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়রে উন্নয়নের কর্মযজ্ঞকে স্বীকৃতি দিতেই হল কেন্দ্রকে৷ এতে কিছুটা হলেও মুখ বন্ধ হওয়ার রাস্তা তৈরি হল রাজ্যের বলেই আসা শাসক দলের৷

Advertisement ---
---
-----