নির্বাসিত হতে পারেন রাহুল-পান্ডিয়া

নয়াদিল্লি: সেলিব্রিটি চ্যাট শোয়ে মহিলাদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যের জের। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আসন্ন ওয়ান ডে সিরিজে দুটি ম্যাচের জন্য নির্বাসিত হতে পারেন লোকেশ রাহুল ও হার্দিক পান্ডিয়া। ভারতীয় দলের এই দুই ক্রিকেটারের নির্বাসনের পক্ষে সওয়াল করেছেন কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর প্রধান বিনোদ রাই। তবে সিওএ সদস্যা ডায়না এডুলজি সমস্ত বিষয় পর্যালোচনা করে তবেই রাহুল-পান্ডিয়ার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানা গিয়েছে।

জনপ্রিয় পরিচালক এবং প্রযোজক করণ জোহার সঞ্চালিত ‘কফি উইথ করণ অনুষ্ঠানে সম্প্রতি মহিলাদের সম্পর্কে অসম্মানজনক মন্তব্য করে বসেন হার্দিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাহুল। যার ফলে টিম ইন্ডিয়ার এই দুই ক্রিকেটারকে বুধবার শো-কজ করে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দুই তরুণ ক্রিকেটারের কাছ থেকে জবাব চাওয়া হয়েছিল। বোর্ডের সেই শো-কজের জবাব দিয়ে বুধবারই দুঃখপ্রকাশ করেন অল-রাউন্ডার পান্ডিয়া।

- Advertisement -

 

কিন্তু পান্ডিয়ার শো-কজের জবাব একেবারেই নাপসন্দ সিওএ চেয়ারম্যানের। অন্যদিকে বোর্ডের শো-কজের কোনও জবাব এখনও অবধি পাওয়া যায়নি রাহুলের থেকে। সেকারণেই এই দুই ক্রিকেটারকে শাস্তিস্বরূপ দুটি ওয়ান ডে ম্যাচের জন্য নির্বাসিত করার পক্ষে সওয়াল করেছেন রাই। তবে তিনি জানান, পুরো বিষয়টা পর্যালোচনার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন এডুলজিই। তাদের এহেন মন্তব্য যে জনমানসে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া ফেলতে পারে, তা আঁচ করেই দুই ভারতীয় ক্রিকেটারকে সবক শেখাতে চাইছে বোর্ড।

সূত্রের খবর, শাস্তিস্বরূপ দুই ক্রিকেটারকে তড়িঘড়ি অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরিয়ে আনার নির্দেশ দেন এডুলজি। কিন্তু রাই কেবল দুটি ম্যাচের জন্য রাহুল-পান্ডিয়ার ব্যানের পক্ষে সওয়াল করেন। অতীতে সিওএ কর্তৃক গৃহীত একাধিক সিদ্ধান্তে বিনোদ রাইয়ের সঙ্গে প্রাক্তন ক্রিকেটার এডুলজির মতবিরোধ প্রকাশ্যে এসেছে। অন্যথা হল না এক্ষেত্রেও। বোর্ডের নিযুক্ত প্রেসিডেন্ট সি কে খান্না, সচিব অমিতাভ চৌধুরী এবং কোষাধ্যক্ষ অনিরুদ্ধে চৌধুরীর থেকে এবিষয়ে মতামত চেয়েছেন এডুলজি। এই মুহূর্তে দুই ক্রিকেটারই অস্ট্রেলিয়ায় ভারতীয় দলের সঙ্গে রয়েছেন৷ সোমবারই অস্ট্রেলিয়ায় ইতিহাস সৃষ্টি করেছে ভারতীয় ক্রিকেট দল৷ প্রথমবার অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ জিতেছে টিম ইন্ডিয়া৷

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়া সফরে যাওয়ার আগে টিম ইন্ডিয়ার সতীর্থ পান্ডিয়ার সঙ্গে করণ জোহরের অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন রাহুল। সেখানেই মহিলাদের আপত্তিকর মন্তব্য করেন ভারতীয় দলের এই দুই ক্রিকেটার৷ তিনি বলেন, একবার বাবা-মায়ের সঙ্গে পার্টি করতে গিয়েছিলেন তিনি। এবং সেখানে তিনি তাঁর বাবাঋমায়ের কাছে তাঁর কোনও মহিলার সঙ্গে সম্পর্কের কথা তিনি জানান। এবং সেই মেয়েকে দেখিয়ে তিনি বলেন, এই মেয়েটিই সেই মেয়ে।

এর সঙ্গে তিনি আরও জোড়েন, যা নিয়েই তোলপাড় আরও বেড়ে যায়। পান্ডিয়া বলেন, তিনি নাকি তাঁর বাবা-মায়ের কাছে কোনও কথা গোপন করেন না৷ এমনকী প্রথমবার কোনও মহিলার সঙ্গে তাঁর শারীরিক সম্পর্কের কথাও মাকে জানিয়েছিলেন হার্দিক। এছাড়াও নাইট ক্লাবে গিয়ে মহিলাদের কোনও জিনিস তার পছন্দের মাকে তাও জানিয়েছিলেন ভারতীয় দলের এই অল-রাউন্ডার। দুই ক্রিকেটারের এহেন মন্তব্যের পরই নড়েচড়ে বসে বিসিসিআই। হার্দিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাহুলকে তাদের মন্তব্যের জন্য শো-কজ নোটিস পাঠায় বোর্ড।