কলেজে ছাত্রীর শ্লীলতাহানি, গ্রেফতার ক্লার্ক

স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: কলেজের ভিতর এক ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে কোচবিহার পঞ্চানন মহিলা কলেজে৷ শ্লীলতাহানির অভিযোগে কলেজের ক্লার্ক রাজু দে’কে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালী থানার পুলিশ৷

দ্বিতীয় বর্ষের ওই ছাত্রীর অভিযোগ, তাঁকে কলেজের সিঁড়িতে একা পেয়ে শ্লীলতাহানি করে রাজু দে৷ ঘটনার পর কোতোয়ালী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই ছাত্রী। এই ঘটনায় কলেজে মেয়েদের নিরাপত্তা নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন অন্য ছাত্রীরা। ঘটনার তদন্ত দাবি করেছেন তাঁরা। কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আইন আইনের মতো কাজ করবে৷ কলেজের তরফ থেকেও অভিযোগ খতিয়ে দেখার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

ওই ছাত্রী জানিয়েছেন, তাদের ফর্ম পূরণ চলছিল৷ সে অনেকটাই দেরিতে কলেজ পৌঁছয়৷ সেই সময় রাজুকে ফর্মটি পূরণ করিয়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করে৷ সেই ক্লার্ক তাকে অপেক্ষা করতে বলে। এরপর বিকেলের দিকে কলেজ অনেকটাই ফাঁকা হয়ে যায়৷ অভিযোগ, সেই সময় রাজু তাঁর শ্লীলতাহানি করে। সে চিৎকার করতে গেলে রাজু দে তাঁকে হুমকিও দেয় বলে অভিযোগ৷

এদিকে ঘটনায় আতঙ্কিত ছাত্রীটির পরিবার৷ ওই ছাত্রীর এক আত্মীয় বলেন, ‘‘আমরা ভেবেছিলাম কলেজের ভিতর আমাদের মেয়ে নিরাপদ৷ কিন্তু এখন কলেজে মেয়েকে পাঠাতে ভয় লাগছে।’’ যদিও এদিন এই নিয়ে কোনও কথা বলতে চাননি কলেজের অধ্যক্ষা সীতা সিং। ঘটনার তদন্ত হবে বলে জানিয়েছেন কলেজ পরিচালন কমিটির সভাপতি আমিনা আহমেদ৷  তিনি বলেন, “আমি ঘটনার পরই বিষয়টি জানতে পারি৷ যদিও ওই ব্যক্তি দোষী হয় তাহলে আইন যেমন তার কাজ করবে৷ তেমনি কলেজ কর্তৃপক্ষও ব্যবস্থা নেবে৷’’

---- -----