স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: কিডনি চুরির অভিযোগ উঠল একটি বেসরকারি নার্সিং হোমের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে আলিপুরদুয়ারের পশ্চিম শালবাড়ি এলাকায়৷

জানা গিয়েছে, ওই এলাকার বাসিন্দা সুরেন রায়ের কিডনির পাথর অস্ত্রোপচারের জন্য গতবছর ৩ নভেম্বর কোচবিহারের নতুন বাজার এলাকার একটি বেসরকারি নার্সিং হোমে ভরতি হন৷ সেদিন তাঁর কিডনির পাথর অপারেশনও হয়৷ এরপর ৯ নভেম্বর তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। অপারেশনের পর পেটে ব্যাথা অনুভব করেন তিনি৷ তাই তিনি ফের ডাক্তার টি পালের কাছে যান৷ কিন্তু তিনি তাঁর ব্যাথা কোনও গুরুত্ব দিচ্ছিলেন না। এরপর চলতি বছরে ৩১ মে ফের তিনি ডাক্তারের কাছে আসেন ব্যাথা নিয়ে৷ তখন ডাক্তার ইউএসজি করতে বলেন তাঁকে৷ ইউএসজির রিপোর্ট হাতে আসতেই তিনি দেখেন তাঁর ডান কিডনি নেই। পর পর তিন জায়গায় ইউএসজি করিয়েও একই রিপোর্ট পান তিনি৷

Advertisement

আরও পড়ুন: জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে বিরাটদের উৎসাহ দিল লিডসের গ্যালারি

এরপর তিনি মঙ্গলবার কোচবিহার জেলাশাসকের কাছে অভিযোগ করেন ডাক্তার টি পালের বিরুদ্ধে। সুরেন রায়ের অভিযোগ, ডাক্তার টি.পাল তাঁর কিডনি না জানিয়েই বের করে নিয়েছেন। তিনি জানান অপারেশনের পর তিনি পেটে ব্যাথা অনুভব করলেও ডাক্তার শুরু ওষুধ দিয়েই ছেড়ে দিচ্ছিলেন৷ এমনকী অন্য এক ডাক্তার বাবু ইউএসজি করতে বললেও টি.পাল তাতে না করে দেন বলে অভিযোগ করেন তিনি। এরপর তাঁর দাবি মেনে ইউএসজি করতে বলেন টি.পাল৷ তখনই তিনি জানতে পারেন তাঁর ডান কিডনি নেই।

যদিও অভিযুক্ত ডাক্তার টি পাল দাবি করেছেন, রোগীর চিকিৎসার কাগজ পত্র না দেখে তিনি এই বিষয়ে কোন মন্তব্য করবেন না। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আনে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ব্লাড ডোনার অর্গানাইজেশন৷ এই সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ করে সুরেন রায়। এদিন ব্লাড ডোনার অর্গানাইজেশের পক্ষ থেকে এই ঘটনার তদন্তের দাবি করা হয়েছে।

https://youtu.be/vqaFKVMEL20

----
--