শিখ সংঘর্ষে জড়িতকে মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসিয়েছে কংগ্রেস: মোদী

ফাইল ছবি

চন্ডীগড়: মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ ৮৪’র শিখ সংঘর্ষে জড়িত৷ এতদিন অকালি দলের তরফে এই নিয়ে অভিযোগ তোলা হত৷ সেই একই অভিযোগ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর গলাতেও৷ স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তোপ দেগে তিনি জানান, গোটা দেশ ৮৪’র সংঘর্ষে জড়িতদের শাস্তি চায়৷ কিন্তু শিখ সংঘর্ষে জড়িতকে মুখ্যমন্ত্রী করে পুরস্কৃত করেছে কংগ্রেস৷

মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ৷

কয়েকদিন আগে শিখ সংঘর্ষে জড়িত থাকার অভিযোগে কংগ্রেসের প্রাক্তন সাংসদ সজ্জন কুমারের যাবজ্জীবন সাজা হয়৷ তারপরই কমল নাথের বিরুদ্ধেও শিখ সংঘর্ষে জড়িত থাকার অভিযোগ তোলে শিরোমণি অকালি দল৷ বৃহস্পতিবার পঞ্জাবের গুরুদাসপুরের জনসভা থেকে এই ইস্যুকে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে আক্রমণের হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করেন মোদী৷ বলেন, ‘‘শিখদের হত্যা করে যাদের হাত লাল হয়ে গিয়েছে সেই সব মানুষদের থেকে পঞ্জাব ও দেশবাসীর সতর্ক হওয়া উচিত৷ এমন ব্যক্তিদের মুখ্যমন্ত্রী পদ দিয়ে পুরস্কৃত করা হয়৷’’

সজ্জন কুমার দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় তার পুরো কৃতিত্ব বিজেপির বলে দাবি করেন মোদী৷ গান্ধী পরিবারের নাম না নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘দেশের একটি পরিবার অভিযুক্তদের বছরের পর বছর ধরে নিরাপত্তা ও আশ্রয় দিয়ে এসেছে৷ এনডিএ ক্ষমতায় আসার পর ৮৪র শিখ সংঘর্ষের তদন্তে সিট গঠন করা হয়েছে৷’’

কংগ্রেস নেতা সজ্জন কুমার
- Advertisement -

১৯৮৪ সালে ইন্দিরা গান্ধী হত্যার পর দেশজুড়ে শিখবিরোধী দাঙ্গা করার অভিযোগও উঠেছিল কমলনাথের বিরুদ্ধে ৷ সেই সময় দিল্লিতেও ৩০০০ শিখকে হত্যা করা হয়েছিল৷ অভিযোগ ওঠে রাকাবগঞ্জ গুরদুয়ারার বাইরে দুইজন শিখকে পুড়িয়ে মারার সময় সেখানে উপস্থিত চিলেন কমলনাথ৷ পরবর্তীকালে এনডিএ আমলে অটল বিহারি বাজপেয়ী নেতৃত্বাধীন সরকার ওই দাঙ্গা তদন্তের জন্য সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি নানাবতী অধীনে এক কমিশন গঠন করা হয়৷ তবে কমিশনের তদন্তে এই অভিযোগের বিষয়ে প্রমাণ মেলেনি৷ ফলে পুরোপুরি অব্যাহতি পান তিনি৷