‘সফল ভারত বনধের জন্য শিবসেনাকে পাশে দরকার কংগ্রেসের’

মুম্বই: এবার কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তোপ দাগল শিবসেনা৷ তাদের পরিষ্কার বক্তব্য যে ভারত বনধ কংগ্রেস ডেকেছিল, তা এক কথায় প্রহসন৷ মহারাষ্ট্রে একেবারেই বনধ সফল হয়নি৷ যদি বনধ সফল করতে হত, তবে শিবসেনার প্রয়োজন হত কংগ্রেসের৷

হাত শিবিরকে একহাত নিয়ে উদ্ধব ঠাকরের দল বলে মহারাষ্ট্রে বনধ সফল করতে গেলে শিবসেনার সাহায্য ছাড়া তা সম্ভব নয়৷ বুধবার নিজেদের দলীয় মুখপত্র সামনার সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে, সেনা যদি এই বনধকে সমর্থন করত তবেই বনধ সফল হত৷

পাশাপাশি, পালগড় লোকসভা আসনের উপনির্বাচনে শিবসেনাকে সমর্থন না করার প্রসঙ্গও তুলে এনেছে তারা৷ বলা হয়েছে কংগ্রেস উদ্দ্যেশ্যপ্রণোদিত ভাবে এই নির্বাচনে শিবসেনার হাত ধরেনি৷ একসাথে লড়লে, বিজেপির ভোটঅঙ্ক আলাদা হত৷ বিজেপিকে হারানো সহজ হত৷ প্রসঙ্গত, পালগড়ে বিজেপির বিরুদ্ধে প্রার্থী দিয়ে শিবসেনা বিরোধীদের ভোটে ভাগ বসায়৷ তবে বিজেপিকে রোখা যায়নি৷ এই আসনে কংগ্রেস পাঁচ নম্বরে শেষ করে, সিপিএমেরও পরে।

- Advertisement -

পড়ুন: অংক শিখুন, ট্যুইটারে পরামর্শ বিজেপিকে

সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখে, জনগণের স্বার্থের জন্যই এই বনধ ডাকা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন শিবসেনা৷ সেনার দাবি এই বনধ সফল হলে খুশি হত তারা৷ কিন্তু মহারাষ্ট্রে তা হয়নি৷

উল্লেখ্য মঙ্গলবারই বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগে শিবসেনা৷ হিন্দুত্বের নামে বিজেপি পিছন থেকে ছুরি মারছে বলে অভিযোগ করে তারা৷ পাশাপাশি, শিবসেনার বক্তব্য হিন্দুদের দেওয়া কোনও প্রতিশ্রুতিই পালন করেনি বিজেপি৷ হিন্দুত্বের ধ্বজা উড়িয়ে বিজেপি ক্ষমতায় এলেও, সেই হিন্দুত্বকেই অবহেলা করছে তাঁরা বলে দাবি করে মহারাষ্ট্রের এই দল৷

উদ্ধব ঠাকরের দলের অভিযোগ বিজেপি নিজের কোনও প্রতিশ্রুতিই পালন করেনি৷ তাই মানুষের থেকে ক্রমশ দূরে সরে যাচ্ছে তারা৷ কংগ্রেস এতদিন মুসলিম তোষণ করে এসেছে৷ আর বিজেপি ক্ষমতায় এসে হিন্দুদের মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে যাচ্ছে৷ হিন্দুদেরই নিরপেক্ষ হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছে৷ নিজেদের দলীয় মুখপাত্র সামনার সম্পাদকীয়তে এমনই বক্তব্য তুলে ধরে শিবসেনা৷

Advertisement
-----