‘মোদী স্বৈরাচারী, মনমোহন ডেমোক্র্যাট প্রধানমন্ত্রী’

নয়াদিল্লি: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে স্বৈরাচারী বলে বিঁধলেন কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা আনন্দ শর্মা৷ জানান, পূর্বসুরি মনমোহন সিং ছিলেন গণতান্ত্রিক প্রধানমন্ত্রী৷ পণ্য পরিষেবা কর ও নোটবন্দি নিয়ে সরকারের সমালোচনা করতে গিয়ে দুই প্রধানমন্ত্রীর তুলনা টেনে বসেন আনন্দ শর্মা৷ বলেন, ‘‘মোদী একজন স্বৈরাচারী৷ কিন্তু মনমোহন সিং ছিলেন গণতান্ত্রিক প্রধানমন্ত্রী৷’’

শুধু পণ্য পরিষেবা কর বা নোটবন্দি নিয়ে নয়৷ একাধিক ইস্যু নিয়ে তিনি বিজেপিকে পাল্টা জবাব দেন৷ যার অন্যতম তিন তালাক বিল৷ শনিবার তিনি জোর গলায় জানিয়ে দেন কংগ্রেস তিন তালাক বিলের বিরোধী নয়৷ বিজেপির দাবি উড়িয়ে তিনি জানান, তিন তালাক বিলের কিছু অংশ নিয়ে কংগ্রেস একা নয়, বিজেপির শরিক দলও আপত্তি জানিয়েছে৷ তবে মুসলিম মহিলাদের সুরক্ষায় এমন এক বিল নিয়ে আসার জন্য আনন্দ শর্মার মুখে বিজেপির প্রতি স্তুতি শোনা গেলেও পরক্ষণেও মহিলা সংরক্ষণ বিল নিয়ে সরকারের দীর্ঘসূত্রিতা নিয়ে খোঁচা মারতে ছাড়েননি তিনি৷

লোকসভায় তিন তালাক বিল পাশ হলেও রাজ্যসভায় বিরোধীদের বিরোধিতার জেরে বিলটি ঝুলে থাকে৷ কংগ্রেস সহ একাধিক বিরোধী দল আপত্তি তুলেছিল বিলের শাস্তির বিধান নিয়ে৷ বাদল অধিবেশনের শেষ মুহূর্তে এসে বিরোধীদের দাবি মেনে শাস্তির বিধান কিছুটা শিথিল করে৷ কিন্তু অধিবেশনের শেষ দিন কংগ্রেস রাফায়েল চুক্তি নিয়ে হইহট্টগোল বাধিয়ে দেওয়ায় শেষ পর্যন্ত ঝুলেই থাকে বিলটি৷ তিল তালাক বিল পাশ না হওয়ায় তার দায় কংগ্রেসের ঘাড়ে চাপিয়ে প্রচার শুরু করে বিজেপি৷ এমনকী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিলটি ঝুলিয়ে রাখার জন্য কংগ্রেসকেই দায়ী করেন৷

- Advertisement -

বিজেপির অভিযোগের জবাব দিতে আসরে নামেন আনন্দ শর্মা৷ এদিন তিনি নেতা বলেন, ‘‘কংগ্রেস কখনও তিন তালাক বিলের বিরোধিতা করেনি৷ বিলের কিছু বিষয় নিয়ে আপত্তি তুলেছিল মাত্র৷ সেই আপত্তি বিজেপির শরিক দলেরাও তুলেছিল৷ মুসলিম মহিলাদের নিয়ে সরকার যে ভাবছে এটা ভালো৷ কিন্তু অন্যান্য মহিলাদের কি হবে? সরকার কেন মহিলা সংরক্ষণ বিল সংসদে পেশ করছে না? বিজেপির কাছে তো বিল পাশ করার মতো সংখ্যাও আছে৷’’

Advertisement ---
-----