রাজীব গান্ধীর ভুল মন্তব্যে নিয়ে ট্যুইট বিতর্কে কংগ্রেস

নয়াদিল্লী : নিজেদেরই ভুল বক্তব্যে ফের বিতর্কে কংগ্রেস নেতারা। দিগ্বিজয় সিংয়ের পক প্রসঙ্গে ভুল মন্তব্যের পর এবার বিতর্কে জড়ালেন পশ্চিমবঙ্গের কংগ্রেস নেতারা। শনিবার রাজীব গান্ধির জন্মদিন উপলক্ষ্যে দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীরই করা একটি মন্তব্য ট্যুইট করা হয় প্রদেশ কংগ্রেসের পক্ষে। তাতেই সৃষ্টি হয় বিতর্কের।

- Advertisement -

১৯৮৪ সালে এক শিখ দেহ রক্ষীর হাতে নিহত হন ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী। দিল্লিতে ইন্দিরা গান্ধীর মৃত্যুর পড়েই শিখদের ওপর আক্রমন শুরু হয়। শুরু হয় শিখ নিধন পর্ব। ঘটনায় জড়িত ছিলেন বহু কংগ্রেস নেতা। অন্তত ২০০০ শিখ সম্প্রদায়ের মানুষ মারা যায়। চরম খারাপ পরিস্থিতির মাঝে দেশের দায়িত্ব নিতে হয় ইন্দিরা পুত্র রাজীব গান্ধীকে।  এরপর তাঁকে যখন এই দাঙ্গার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন “ যখন কোন বড় মহীরুহের পতন ঘটে, তখন ধরণীর মাটি কেঁপে ওঠে”। রাজীব একপ্রকার দাঙ্গার পক্ষেই কথা বলেছিলেন। রাজীবের ৭২তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে সেই বিতর্কিত মন্তব্যের ওই অংশটিই প্রদেশ কংগ্রেসের পক্ষে ট্যুইট করে ফের তুলে ধরা হয়। কংগ্রেস নেতারা রাজীবকে একটু অন্যভাবে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করতে চেয়েছিলেন। অথচ সেই মুহূর্তে তাদের খেয়ালই ছিল না কতখানি ভুল ছিল তাদের ট্যুইট। নিজেদের ভুল দেরীতে হলেও বুঝতে পেরে শেষ পর্যন্ত ডিলিট করে দেওয়া হয় ট্যুইটটি। তবে ততক্ষনে যা হবার হয়ে গিয়েছিল।

 

প্রসঙ্গত ৬ আগস্ট কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং জম্মু কাশ্মীরকে “ ভারত অধিকৃত” বলে বিতর্কিত জড়িয়ে পড়েন। এরপরে এই প্রসঙ্গে এক সাংবাদিকের প্রশ্নে তাঁর সম্বিত ফেরে। তখন নিজের বক্তব্যের ভুল স্বীকার করেও নিয়েছিলেন তিনি। নিজের বক্তব্যটিও ফের সাজিয়ে গুছিয়ে নতুন করে তুলে ধরেন সংবাদ মাধ্যমের সামনে।

 

 

 

 

 

Advertisement ---
---
-----