জঞ্জাল ঘিরে তরজায় বর্তমান ও প্রাক্তন পুরপ্রধান

স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: ইস্যু জঞ্জাল৷ আর তা নিয়েই প্রকাশ্যে পরস্পরকে দুষলেন শাসকদলের বর্তমান ও প্রাক্তন পুরপ্রধান৷ ঘটনাটি মালদহর ইংরেজ বাজার পুরসভা এলাকার৷ ফলে শাসকদলের বর্তমান ও প্রাক্তন পুরপ্রধানের কোন্দলের জেরে এলাকার রাজনৈতিক মহলে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷

ইংরেজবাজার পুরসভাটি তৃণমূলের দখলে৷ সংশ্লিষ্ট পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরীর অভিযোগ, ‘‘ বর্তমান পুরপ্রধানের কনও যোগ্যতা নেই৷ তাই ওঁর আমলে শহর কার্যত নরক কুন্ডে পরিণত হয়েছে৷’’ একই সঙ্গে বর্তমান পুরপ্রধান নিহার রঞ্জন ঘোষকে ব্যক্তিগতভাবে তীব্র আক্রমণ করে তিনি বলছেন, ‘‘নিহারবাবু তো অন্য দল থেকে উড়ে এসে জুড়ে বসেছেন। উনি তৃণমূলের মর্ম কি বুঝবেন? উনি এতটাই খারাপ কাজ করছেন, যাতে দলটাই না থাকে মালদহে।’’

আরও পড়ুন: একই দিনে উদ্ধার বিরল প্রজাতির ক্যামেলিয়ন ও প্যাঙ্গোলিন

- Advertisement -

থেমে থাকেননি বর্তমান পুরপ্রধান নিহারবাবুও৷ কৃষ্ণেন্দু চৌধুরীকে পাল্টা আক্রমণ করে তিনি বলেছেন, ‘‘কৃষ্ণেন্দুবাবু যদি দলের একনিষ্ঠ সদস্য হতেন তাহলে দলকে ভালোবাসতেন। এভাবে প্রকাশ্যে গালমন্দ না করে ওঁনার সমস্যার করা পুরসভার বৈঠকে বা দলের অন্দরে বলতে পারতেন৷ এর থেকেই স্পষ্ট ওঁনার অন্য কোনও অভিসন্ধি রয়েছে। বিরোধীদের সুবিধে পাইয়ে দেওয়ার জন্যই উনি মিথ্যে কুৎসা করছেন।’’

প্রসঙ্গত, বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই জঞ্জালময় হয়ে রয়েছে মালদহের ইংরেজবাজার শহর। ফলে নরক যন্ত্রণা ভোগ করতে হচ্ছে গোটা এলাকাবাসীকে। অভিযোগ, আবর্জনার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে মশার দাপট। এলাকায় বাড়ছে মশাবাহিত রোগের প্রকোপ৷ কৃষ্ণেন্দুবাবুর অভিযোগ, ‘‘২০০৪ সালে তাঁর আমলে এই ইংরেজবাজার পুরসভাকে তৎকালীন কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকার পরিবেশ বান্ধব পুরসভা বলে ‘এনভারমেন্ট অফ এক্সেলেন্স’ উপাধী দিয়েছিল। সমগ্র এলাকার সুস্থ পরিবেশ এবং সঠিকভাবে পুরনো শহরকে পরিকল্পনা মাফিক সাজানোর জন্যই এই পুরস্কার পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু বর্তমান পুরবোর্ড শহরকে কার্যত নরক কুন্ডে পরিণত করেছে। বর্তমান চেয়ারম্যান নিহার রঞ্জন ঘোষের যোগ্যতা নেই তাই শহরের সাধারণ মানুষকে প্রতিনিয়ত নরক যন্ত্রণা ভোগ করতে হচ্ছে। নিয়মিত জঞ্জাল পরিষ্কার হচ্ছে না৷ যার ফলে বিভিন্ন রোগের প্রকোপ দেখা দিচ্ছে৷ পাশাপাশি যানজট শহরের নিত্যদিনের সমস্যা হয়ে উঠেছে৷’’

আরও পড়ুন: কলেজে ভরতিতে অনিয়ম রুখতে পুলিশকে কড়া নির্দেশ মমতার

পাল্টা হিসেবে বর্তমান পুরপ্রধান নিহার রঞ্জন ঘোষ বলেন, ‘‘কৃষ্ণেন্দুবাবু যে অভিযোগ করছেন তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। তাঁর আমলের থেকে বর্তমান পুরবোর্ড অনেক ভালো পরিষেবা দিচ্ছে। সংবাদমাধ্যমের সামনে এসব অভিযোগ না করে তিনি বোর্ড অফ কাউন্সিলরদের মিটিংয়ে সেই কথা বলতে পারতেন। নিজের দলকে ছোট করে নিজেকে বড় প্রমাণ করা এর পেছনে তাঁর কোনও রাজনৈতিক অভিসন্ধি রয়েছে।’’

এলাকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন, বর্তমান পুরপ্রধান বনাম প্রাক্তন পুরপ্রধানের এই তরজার জেরে শহর ক্রমেই জঞ্জালময়হয়ে উঠছে৷ সমস্যায় পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।

Advertisement ---
---
-----