স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: কলেজ স্কোয়ারে সাঁতারের শিক্ষক মারধোর করছেন ছোট ছোট শিশুদের। প্রশিক্ষণে গাফিলতির কারণেই নাকি এই শাস্তি। সেই শাস্তির ভিডিও তুলে বিতর্কে জড়ালেন অভিনেতা অরিত্র দত্ত বণিক।

আরও পড়ুন- ক্যামেরার সামনে আলিয়াকে এমন প্রস্তাব দিলেন রণবীর

ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার বিকেলের দিকে। কলেজ স্কোয়ারের এক সাঁতার প্রশিক্ষক মারধর করেন তাঁর ছোট ছোট ছাত্রদের। সেই সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন অরিত্র এবং তাঁর বন্ধু ইন্দ্রজিত ঘোষ। সেই মুহূর্তের ভিডিও তাঁরা ক্যামেরাবন্দি করেন। আর এতেই ঘটে বিপত্তি।

অরিত্র এবং তাঁর বন্ধুর অভিযোগ, ভিডিও করা হচ্ছে বুঝতে পেরেই ছুটে আসেন ওই সাঁতার প্রশিক্ষক। রীতিমতো হুমকির সুরে ওই ভিডিও মুছে ফেলার দাবি করা হয়। শুধু তাই নয় উলটে শাস্তির ভিডিও রেকর্ড করে তাঁরা ভুল করেছেন সেই স্বীকারোক্তির ভিডিও করার দাবিও করা হয়।

এখানেই শেষ হয়নি। অরিত্র এবং তাঁর বন্ধুর বিরুদ্ধে কলেজ স্কোয়ার কর্তৃপক্ষ অভিযোগ করে যে ওই দুই যুবক নাকি অসাধু উদ্দেশ্যে সাঁতারের পোশাক পরা মেয়েদের ভিডিও রেকর্ড করেছেন। এই বিষয়ে শিশু শিল্পী হিসেবে জনপ্রিয় হওয়া অরিত্র বলেছেন, “একটা শিশু সাঁতারের পোশাক পরে মার খাচ্ছে। সেই ভিডিও আমি পর্ণ সাইটে দেব? আর ওই শিশুর সাঁতারের ছবি দেখে আমার যৌন তৃপ্তিও হবে না। শুধু মাত্র মারধোরের বিষয়টিই রেকর্ড করতে চেয়েছিলাম।”

শিশুদের অভিভাবকেরা নাকি কলেজ স্কোয়ার কর্তৃপক্ষের পাশেই দাঁড়িয়েছিলেন। সেই সকল অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে অরিত্র বলেছেন, “সাঁতার একটা শিল্প। এই ধরনের শিল্প মারধর করে হয় না।” জোর করে, চাপিয়ে দিয়ে কাউকে কিছু শেখানো যায় না বলেও জানিয়েছেন অরিত্র।

----
--