ঋতুমতী ছাত্রীদের বিড়ম্বনা কমাতে স্কুলেই বসল ভেন্ডিং মেশিন

স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: স্কুলের ছাত্রীদের ঋতুকালীন সমস্যার সমাধানে এগিয়ে এল কোচবিহারের উচ্চবালিকা বিদ্যালয়৷ আজ, বুধবার কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে স্কুল চত্বরে বসানো হল স্যানেটারি ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিন।

উদ্বোধন করলেন কোচবিহারের জেলাশাসক কৌশিক সাহা। তিনি এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘কোচবিহারের কাছে একটা ঐতিহাসিক দিন৷ এই প্রথম কোচবিহারের কোনও মেয়েদের স্কুল এই উদ্যোগ নিয়েছে।’’

আরও পড়ুন: অমিতাভের চোখে জল আনল মেয়ের ডেবিউ

- Advertisement -

এই প্রথম কোচবিহারের কোনও স্কুলে এই ধরনের স্যানিটারি ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিন চালু করা হল। প্রশাসনের আশা আগামিদিনে জেলার অন্য স্কুলগুলি একই পদক্ষেপ নেবে৷

ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা নবনীতা শিকদার জানান, তাঁদের স্কুলে প্রায় ১৫০০ মেয়ে রয়েছে৷ কাজেই প্রতিদিনই কোনও না কোনও মেয়ে ঋতুকালীন সমস্যায় পড়ে। ফলে অনেকেই স্কুল থেকে সেদিনের মতো ছুটি নিয়ে বাড়ি চলে যায়। এর জেরে পড়ুয়াদের লেখাপড়ায় ব্যাঘাত ঘটছে৷ তাই স্কুল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে ভাবনাচিন্তা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে নবনীতাদেবী জানিয়েছেন৷

আরও পড়ুন: শপথ গ্রহণ হয়নি তৃণমূল পুরপ্রধানের, জেলাশাসককে নির্দেশ দিল আদালত

যদিও এই পরিষেবা বিনা পয়সায় পাবে না ছাত্রীদের৷ তাদের প্রতিটি ন্যাপকিন পিছু খরচ করতে হবে পাঁচ টাকা করে৷ কিন্তু তাতেও স্কুলের উদ্যোগে খুশি পড়ুয়ারাও৷ তারা এর জন্য ধন্যবাদ দিয়েছেন স্কুল কর্তৃপক্ষকে৷

এদিনের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলার কন্যাশ্রীর দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক তমোজিত চক্রবর্তী ও স্কুলের শিক্ষিকারা। এদিন তমোজিত চক্রবর্তী বলেন, ‘‘ঋতুকালীন সমস্যা নিয়ে মানুষের যে ট্যাবু রয়েছে, তা ভাঙতে জেলা জুড়ে বিভিন্ন স্কুলের কন্যাশ্রীরা কাজ করছে। ইতিমধ্যেই কন্যাশ্রী বিভাগের পক্ষ থেকে এই মেশিন রক্ষণাবেক্ষণের জন্য স্কুলের ছাত্রী ও শিক্ষিকাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।’’

আরও পড়ুন: বলিউডে জিৎ? দেখুন কী বলছেন অভিনেতা

Advertisement
---