তমলুক: রথের রশিতে টান পড়তেই পাড়ায় পাড়ায় খুঁটি পুজো শুরু৷ আসলে রথযাত্রা মানেই আগমনীর বার্তা আকাশে বাতাসে৷ বাঙালির দিন গোনা শুরু৷ রীতি মেনে কলকাতার পাশাপাশি জেলাগুলিতেও শনিবার খুঁটি পুজো সারলেন পুজো উদ্যোক্তারা৷

ছবি: প্রতীকী

ভরা বর্ষাতেই খুঁটি পুজোর হাত ধরে বাঙালির শারোদৎসবের কাউন্টাডাউন শুরু। কলকাতার মেগা বাজেটের বিভিন্ন পুজো কমিটিগুলির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মফস্বলেও এখন পুজোর দু’তিন মাস আগে থেকেই প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায়৷ তমলুকের অলস্টার ক্লাবের কর্মকর্তারা ধুমধাম করে খুঁটি পুজোর পর্বটা সেরে নিলেন শনিবারের রথযাত্রার শুভক্ষণেই৷

হাজির ছিলেন পুজোর অন্যতম উদ্যোক্তা পৃথ্বীশ নন্দী৷ তিনি জানালেন, রাজস্থানের নির্মাণের আদলে তৈরি হবে তাঁদের পুজো মণ্ডপ। ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে পুজোর চতুর্থীর দিন সারা তমলুক শহর জুড়ে বের হবে রাজস্থানের ঐতিহ্যশালী বিভিন্ন সামগ্রী নিয়ে বিরাট বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা৷

এবার এই পুজো কমিটির বাজেট প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা৷ পুজো প্যাণ্ডেল জুড়ে থাকবে ‘মরুভূমির জাহাজ’, বালি৷ চতুর্থীর দিন পুজোর উদ্বোধনে আসার কথা রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। পুজোর প্যাণ্ডেলের থিমের নকশা তুলে ধরলেন ক্লাবের সদস্যরা। ঢাকের তালে তালে কোমর দুলিয়ে খুঁটি পুজোর আনন্দে মেতে উঠলেন অলস্টারের কর্মকর্তারা।

 

---