হাইকোর্টের নির্দেশে পঞ্চায়েতে স্থগিতাদেশ

স্টাফ রিপোর্টার, ক্যানিং: পঞ্চায়েতে আদালতের গেরো কেটেও কাটতে চাইছে না৷ সেই মনোনয়ন পর্ব থেকে বারবার আদালতে আঙিনায় পৌঁছেছে পঞ্চায়েত নির্বাচন প্রক্রিয়া৷ রাজ্য সরকার, শাসক দল ও বিরোধীদের প্রায়ই রোজই তীব্র হয়েছে বাদানুবাদ৷

আদালতের নির্দেশেই শেষপর্যন্ত ভোট হয়েছে৷ একবার ভোট পিছিয়েছে৷ আর একবার নির্ধারিত দিনে হয়েছে৷ কিন্তু তার পরও জট কাটেনি৷ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ফলাফল হওয়া আসনগুলিকে নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে৷

আরও পড়ুন: ‘সরকার তো গয়ি, হাম হার রহে হ্যায়’, প্রচার সেরে বলেছিলেন বাজপেয়ী

- Advertisement -

মামলা হয়েছে সুপ্রিম কোর্টে৷ নির্বাচন প্রক্রিয়া শেষ হয়ে যাওয়ার পরও সেই মামলা চলেছে৷ সম্প্রতি সেই মামলার রায় দিয়েছে শীর্ষ আদালত৷ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জেতা আসনগুলিকে বৈধ বলে ঘোষণা হয়৷

তার পর জেলায় জেলায় পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন শুরু হয়৷ তার জেরে অশান্তিও চলছে বিভিন্ন জায়গায়৷ প্রাণহানির ঘটনাও ঘটেছে৷ তার মধ্যেই জানা গেলে কলকাতা হাইকোর্টের নতুন একটি স্থগিতাদেশের খবর৷ স্বাভাবিকভাবেই যা মুহূর্তের মধ্যে চড়িয়ে দিয়েছে রাজ্য রাজনীতির পারদ৷ সকলেরই একটা প্রশ্ন, হঠাৎ আবার কেন স্থগিতাদেশ জারি করল আদালত৷

আরও পড়ুন: বিজেপির মনোনীত প্রধানকে অপহরণে অভিযুক্ত তৃণমূল

জানা গিয়েছে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং ১ ব্লকে গোপালপুর নামে একটি গ্রাম পঞ্চায়েত রয়েছে৷ ওই গ্রাম পঞ্চায়েতের এক জয়ী সদস্য নিখোঁজ৷ তাঁর খোঁজ পেতেই আদালতে মামলা হয়েছে৷ সেই মামলার শুনানিতেই আদালত ওই স্থগিতাদেশ জারি করেছে৷

আদালতের তরফে জানানো হয়েছে, গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন করা যাবে৷ কিন্তু তা ঘোষণা করা যাবে না৷ সোমবার ওই গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠনের জন্য ভোটাভুটি হয়৷ কিন্তু আদালতের নির্দেশ মেনে ওই ভোটাভুটির ফল গোপন রেখেছে প্রশাসন৷ এখন দেখার পরবর্তী শুনানিতে কী হয়৷

আরও পড়ুন: চোকসিকে গ্রেফতার করার জন্য প্রয়োজন নেই ইন্টারপোল নোটিশের

যদিও এর জন্য অশান্তি কিন্তু থামেনি৷ বরং বেড়েছে৷ সোমবার সকাল থেকে দফায় দফায় উত্তেজনা ছড়ায় গোপালপুর এলাকায়৷ তৃণমূল ও নির্দলের মধ্যে গোলমালের জেরেই উত্তেজনা ছড়ায়৷ ক্যানিংয়ের সাতমুখী বাজারে যুব তৃণমূল কংগ্রেসের একটি কার্যালয়ে ভাঙচুর চালানো হয় বলে অভিযোগ৷

তৃণমূলের তরফে ওই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়৷ তারা পালটা দাবি করে যে তাদের মারধর করা হয়েছে৷ পরিস্থিতি সামাল দিতে এলাকায় প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

আরও পড়ুন: মমতার বাড়িতে বিজেপির আমন্ত্রণপত্র

Advertisement ---
---
-----