গোহত্যা চললে, গণপিটুনিও চলবে: বিজেপি বিধায়ক

জয়পুর: আলওয়ারের গণপিটুনির ঘটনা দেশে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছিল৷ প্রতিবাদ উঠেছিল সব মহল থেকে৷ রাকবর খানের মৃত্যু চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়েছিল মানুষের আইন হাতে তুলে নেওয়ার প্রবণতা বাড়ছে৷

সেই পরিস্থিতিকে আরও উসকে দিয়ে দলকে অস্বস্তিতে ফেললেন রাজস্থানের বিজেপি বিধায়ক জ্ঞান দেব আহুজা৷ তিনি মঙ্গলবার বলেন গোহত্যা সন্ত্রাসবাদের চেয়েও বড় অপরাধ৷ সন্ত্রাসবাদে দু চারজন মানুষ মারা যায়, কিন্তু গোহত্যায় কোটি কোটি হিন্দুর ভাবাবেগকে আঘাত আসে৷

তিনি আরও বলেন, ভারত এমন এক দেশ, যেখানে মাকে শ্রদ্ধা করা হয়। আর গোমাতা আমাদের আরেক মাতা৷ মায়ের প্রতি ‘দুর্ব্যবহার ও গুণ্ডামি’ এ দেশে বরদাস্ত করা হয় না। তাই এটা সন্ত্রাসবাদের থেকেও বড় অপরাধ।

- Advertisement -

তিনি বলেন গোহত্যা চললে মানুষ ক্ষেপে যাবেই৷ আর গণপিটুনিও তাই চলবে৷ গোহত্যা বন্ধ না হলে গণপিটুনি বন্ধ করা যাবে না৷

বেশ কিছুদিন আগেই, এই প্রেক্ষিতে মুখ খুলেছিলেন বিজেপি নেতা টি রাজা সিং৷ তিনি বলেছিলেন, মিডিয়াতে এই বিষয় নিয়ে খুব হইচই হচ্ছে৷ কিন্তু কেউ একবারও ভাবছে না কেন এই ধরনের ঘটনা ঘটছে৷ গোহত্যা বন্ধ না হলে গণপিটুনির মতো ঘটনা বন্ধ করা যাবে না৷ দরকার হলে আইন করে এটা বন্ধ করতে হবে৷

আলোয়ারের গণধোলাই খাওয়া যুবককে গোরু পাচারকারী বলে অভিহিত করেন৷ বলেন, ‘‘ওই যুবক গোরু পাচারকারী৷ তার কাজ গোরু পাচার করা, হত্যা করা এরপর গো মাংস বিক্রি করা৷ এটা আমি নয় মিডিয়াও বলছে৷ ওই যুবকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ কেউ এই নিয়ে কিছু বলছে না৷ শুধু বলা হচ্ছে কীভাবে নিরীহ মানুষদের গণধোলাই করা করছে একশ্রেণির মানুষ৷’’ গোরুকে রাষ্ট্রীয় মাতা ঘোষণা করতে চেয়ে সংসদে আবেদন জানিয়েছেন বলে জানান৷

Advertisement
---