বনধ্: ফরওয়ার্ড ব্লকের ফোন কেটে গেল!

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সোমবার রাজ্যে অর্ধদিবস হরতাল৷ হরতাল করতে হাত মিলিয়েছে সিপিএম এবং কংগ্রেস৷ অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেস এবং ফরওয়ার্ড ব্লক হরতালের বিরোধিতা করছে৷ সোমবারের ওই অর্ধদিবস বনধে স্বভাবতই দুই ভাগে বিভক্ত রাজ্যের রাজনৈতিক শিবির৷

বামফ্রন্ট এবং কংগ্রেসের কাছে বনধের প্রধান ইস্যুগুলি হল, মোদী সরকারের জনবিরোধী নীতি৷ পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি৷ দেশজোড়া বেকারত্ব কিংবা রাফায়েল-দূর্নীতি৷ অন্যদিকে, তৃণমূল কংগ্রেস রাজ্যে নিজের বনধ বিরোধী ইমেজকে ধরে রাখতে মরিয়া৷ ফরওয়ার্ড ব্লক অবশ্য জানিয়েছে, তাদের বনধের ব্যাপারে জানানোই হয়নি৷ সেই কারণেই সোমবার তারা রাস্তায় নামছে না৷

সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র অবশ্য বলেছেন, ফরওয়ার্ড ব্লক নীতিগতভাবে ওই বনধের পক্ষে৷ তাদের দিল্লি নেতৃত্বকে বনধের বিষয়ে জানাতে পারেনি সিপিএম৷ ফোনে যোগাযোগ করা যায়নি৷ এদিকে ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য সম্পাদক নরেন চট্টোপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠক করে জানান, রাজ্য পার্টি বনধের ব্যাপারে জানত না৷ খবরের কাগজের বিজ্ঞাপনেও নাকি পাঁচ বাম দলের নাম প্রকাশিত হয়েছে৷ ফরওয়ার্ড ব্লকের নাম সেখানে নেই৷

সূর্যকান্ত এদিন জানান, তৃণমূল যদি বনধের বিরোধীতা করে, তবে তাদের বিজেপি বিরোধীতা যে ‘লোক দেখানো’, সেটাই প্রমাণ হবে৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফেডারেল ফ্রন্টের উদ্যোগ যে অর্থহীন, তা স্পষ্ট হতে বাকি থাকবে না৷

----
-----