জোর ধাক্কা! নির্বাচনে জিতেই দলবদল বাংলায়

    স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: দলের টিকিটে ভোটে জিতে অবশেষে তৃণমূলে নাম লেখালেন সিপিএমের বিজয়ী প্রার্থী৷ বীরভূমের মহম্মদজারের নব নির্বাচিত সিপিআইএমের বিজয়ী প্রার্থী।হাইআলি খানের নেতৃত্বে শনিবার ২৫০ জন সিপিআইএম সমর্থক তৃণমূলে যোগ দিলেন৷ হাইআলি খানের কথায়, ‘‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উন্নয়নে সামিল হয়ে কাজ করতে চাই মানুষের জন্য। তাই দলত্যাগের সিদ্ধান্ত৷’’

    প্রসঙ্গত, জেলার দুটি পঞ্চায়েতে হেরেও ১৬৭টা পঞ্চায়েতই গড়ার ডাক দিয়েছিলেন তৃণমূলের বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল৷ বীরভূম জেলায় পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিরোধী শুন্য করার ডাক দিয়েছিলেন অনুব্রত৷ যদিও দুটি পঞ্চায়েত দখল করেছে বিজেপি। বিষয়টিকে ভালো চোখে দেখছেন না অনুব্রত। কি ভাবে ২টি পঞ্চায়েতে হার হল তা খতিয়ে দেখতে তড়িঘড়ি শুক্রবার জেলা কমিটির বৈঠক ডাকেন তিনি৷

    বৈঠক শেষে নলহাটি ১ নম্বর ব্লকের ২ জন নির্দল প্রার্থী অনুব্রত মণ্ডলের হাত ধরে তৃণমূলে যোগ দান করে। শনিবারও ঠিক একই ছবি ধরা পড়লো মহম্মদবাজারে। দলের টিকিটে জিতেও দলের কাজে লাগলো না নব নির্বাচিত সিপিআইএমের বিজয়ী প্রার্থী। মহম্মদ বাজারের পুরাতন গ্রাম পঞ্চায়েতের মোট ১৩ টি আসনের মধ্যে ৯ টি তৃণমূলের দখলে, ২ টি বিজেপির দখলে, ১ টি সিপিআই এমের দখলে আর একটি ফরওয়ার্ড ব্লকের দখলে ছিল। তার মধ্যে ১৩ নম্বর সংসদে কুবিলনগরের সিপিআইএম এর নব নির্বাচিত প্রার্থী হাইআলি খান এদিন তৃণমূলে যোগ দিলেন৷

    Advertisement ---
    -----