কারণ বারণেই অপরাধ বাড়ছে বিহারে: মুখ্যমন্ত্রী

লখনউ: রাজ্যজুড়ে মদ্যপান নিষিদ্ধ করার কারণেই বৃদ্ধি পেয়েছে অপরাধের প্রবণতা। সাম্প্রতিক কালে বিহারে বেড়ে চলা অপরাধের বিষয়ে এমনই মন্তব্য করেছেন ওই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। মাস খানেক ধরে বিহারে সম্পূর্ণরূপে বন্ধ হয়েছে মদ্যপান। এর বিরুদ্ধে কড়া শাস্তির ব্যবস্থাও করা হয়েছে। এই সবকিছুরই কাণ্ডারি ওই রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান নীতীশ কুমার।

গত এক সপ্তাহের মধ্যে বিহারে ঘটে গিয়েছে মর্মান্তিক দু’টি ঘটনা। গয়ায় এক কিশোর ছাত্রকে গুলি করে খুন করা হয়। আর ওই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত রাজ্যের শাসক তথা নীতীশের জেডিইউ দলের বিধায়কের পুত্র। এর কিছুদিন পরেই এক সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা করা হয় বিহারের সিয়ন জেলায়। প্রথম ঘটনায় বিলম্বে হলেও মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করলেও দ্বিতীয় ঘটনায় সেভাবে এগোয়নি তদন্তের গতি। অন্যদিকে নীতীশের রাজত্বে বিহারে জঙ্গলরাজ চালু হয়েছে বলে অভিযোগ তুলতে শুরু করে দিয়েছে বিরোধীরা। এহেন পরিস্থিতিতে প্রথমবার এই বিষয়ে মুখ খুললেন নীতীশ কুমার। রবিবার উত্তর প্রদেশের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে দলের প্রচারের জন্য লখনউতে জনসভা করেন জেডিইউ প্রধান নীতীশ কুমার। ওই জনসভায় তিনি বলেন, “বিহারে দু’একটি ছোট ঘটনা ঘটেছে এরজন্য আমি অত্যন্ত দুঃখিত। অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া চালু আছে। যতক্ষণ পর্যন্ত দোষীদের আইনের কাঠগড়ায় না দাঁড় করাতে পারছি ততক্ষণ পর্যন্ত আমার স্বস্তি নেই।” এরপরেই তিনি বলেছেন, “কিন্তু একটু ভালো করে দেখলেই বোঝা যাবে যে মদ্যপান বন্ধ হওয়ার পর থেকেই বিহারে অপরাধের ঘটনা বেড়েছে।”

‘কারণ’ বারণে নয়া বিপদে বিহার

কারণ বারণ’ অমান্য করে বিহারে গ্রেফতার সাত ব্যবসায়ী

নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে উত্তর প্রদেশের শাসক দল সমাজবাদী পার্টি এবং মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবকেও আক্রমণ করেছেন জেডিইউ প্রধান নীতীশ। সেক্ষেত্রেও তাঁর হাতিয়ার ছিল ‘কারণ বারণ।’ নীতীশের কথায়, “আমাদের রাজ্যে জখন মদ্যপান নিষিদ্ধ করা হল তখন উত্তর প্রদেশ এবং ঝাড়খণ্ডের সরকারের কাছে চিঠি দেওয়া হয়েছিল তাঁদের রাজ্যে মদ্যপান বন্ধ করার জন্য। এবং বিহারের সীমান্তবর্তী এলাকাগুলিতে যাতে এই নিষেধাজ্ঞা বজায় থাকে সেই বিষয়ে সাহায্যের আবেদনও করা হয়েছিল বিহার রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। কিন্তু, উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর থেকে কোনও উত্তর মেলেনি। চিঠির প্রাপ্তি স্বীকারও করেনি অখিলেশ যাদবের সরকার।”

‘কারণ’ বারণে নয়া বিপদে বিহার

‘কারণ’ বারণে এবার শপথ নিলেন পুলিশকর্মীরা