রোনাল্ডোর পায়ে গোলের অপেক্ষায় ফুটবল দুনিয়া

তুরিন: এ যেন রোনাল্ডো ২.০৷ গোলের দেখা না পেলেও জুভেন্তাসের জয়ে অবদান রাখছেন সুপারস্টার৷

জুভেন্তাসের হয়ে অভিষেক ম্যাচে গোল পাননি৷ ঘরের মাঠে শনিবার তাই প্রত্যাশার পারদ চড়ছিল৷ নয়া ক্লাবের হয়ে দ্বিতীয় ম্যাচেও গোল পেলেন না পর্তুগিজ ফুটবলের পোস্টার বয়৷ উল্টে গোল মিস করলেন একাধিকবার৷ ফিনিশিংয়ে অভাব৷ টানা দুই ম্যাচে রোনাল্ডোর পায়ে গেল নেই, তাই ভক্তরা ভ্রু কুচকাতেই পারতেন৷ কিন্তু দিনের শেষে রোনাল্ডো ম্যাজিক অনুরাগীদের হতাশ মুখে হাসি ফোটাল৷

শনিবার ঘরের মাঠে লাজিও’র বিরুদ্ধে জুভেন্তাসের ইন্সুরেন্স গোল করালেন রোনাল্ডো৷ নিজেই গোল করতে পারতেন৷ কিন্তু ভাগ্য সাথ দেয়নি৷ ৭৫মিনিটে বিপক্ষের গোলকিপারকে বোকা বানিয়ে ব্যাক হিলে বল প্রায় জালে জড়িয়ে দিয়েছিলেন৷ রোনল্ডোর দুর্বল শট গোললাইন পার করার আগেই মাটিতে ড্রপ খায়৷ ফিরতি বলে এরপর গোলের সুযোগ হাতছাড়া করেননি মারিও মান্দজুকিচ৷ এর আগে প্রথমার্ধে ৩০ মিনিটে জুভেন্তাসের প্রথম গোলটি করেন মিরালেম পিয়ানিচ৷ ২৫ গজ দূর থেকে ভলিতে গোল পিয়ানিচের৷ লিগের দ্বিতীয় ম্যাচে লাজিওকে জুভেন্তাস হারাল ২-০ ব্যবধানে৷

গোলের সুযোগ যে একেবারে পাননি তা নয়, ঘরের মাঠে রোনাল্ডো… রোনাল্ডো… শব্দব্রহ্মের মাঝে বল পায়ে একাধিকবার স্কিল দেখাতে দেখা গিয়েছে তুরিন জনতার নতুন নয়নের মণিকে৷ সেই সঙ্গে দুই অর্ধ মিলিয়ে গোটা পাঁচেক সুযোগ তৈরি করলেও গোলমুখ খুলতে পারেননি রোনাল্ডো৷ ক্রিশ্চিয়ানোর একটি শট লাজিও’র গোলরক্ষকের হাতে লেগে অল্পের জন্য রক্ষা পায়৷

এখনও পর্যন্ত নতুন ক্লাবের হয়ে ১৪টি শট নিয়েছেন রোনাল্ডো৷ যার মধ্যে একবার ও গোলমুখ খুলতে পারেননি সিআর সেভেন৷ জুভেন্তাসের হয়ে রোনাল্ডো কবে গোল করবেন সেই অপেক্ষায় প্রহর গুনছে ফুটবল দুনিয়া৷

গোল মিস করা একেবারের পছন্দ নয় সিআর সেভেনের৷ তবে এদিন গোল মিস করায় কোনও ভাবেই তাঁকে রাগতে দেখা যায়নি বলেই ম্যাচ শেষে জানিয়েছেন জুভেন্তাস কোচ অ্যালেগ্রি৷

Advertisement ---
---
-----