সেমিফাইনালের আগে নির্বাসনের মুখে তারকা ফুটবলার

সোচি: ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে নামার আগে নির্বাসনের মুখে পড়তে পারেন ক্রোট তারকা৷ সোচিতে পোনাল্টি শ্যুটআউটে রাশিয়াকে হারায় ক্রোয়েশিয়া৷ সেমিফাইনালে পৌঁছে ড্রেসিংরুমে সেলিব্রেশনের মেতে ওঠে ক্রোট ফুটবলাররা৷ সেখানেই বিপত্তি৷

সেলিব্রেশনের সময় রাশিয়ার বিরুদ্ধে এই জয় ইউক্রেনকে উৎসর্গ করেন ক্রোয়েশিয়ার ফুটবলার ভিদা৷ক্রোট ফুটবলারের এই রকম আচরণে বিতর্ক তৈরি হয়েছে৷ কারণ, ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছেই৷ সোভিয়েত ভাঙ্গার পর ইউক্রেনের মধ্যে পড়া ক্রিমিয়ার জনগণ গণভোটে রাশিয়ার পক্ষে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন এবং তারপরই ক্রিমিয়া হাতছাড়া হয় ইউক্রেনের৷ এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাশিয়া ও ইউক্রেন পরস্পরের প্রতি যুদ্ধংদেহী মনোভাব নিয়ে রেখেছে৷ বিশ্বকাপে রাশিয়াকে হারানোর পর ইউক্রেনের বন্দনা গেয়ে কার্যত ভিমরুলের চাকেই ঢিল মারলেন ক্রোয়েশিয়ার ভিদা৷

ভিদাই নন, এর আগে দুই সুইস ফুটবলারকে ঘিরেও বিতর্ক তৈরি হয়েছে৷ দু’জনেই সার্বিয়ার বিরুদ্ধে খেলতে নেমে বিতর্কিত জয় চিহ্ন দেখান৷ ঈগল মার্কা সেই চিহ্নের প্রতিবাদ করেছে সার্বিয়া৷

- Advertisement -

শনিবারের ম্যাচে ১০১ মিনিটে ভিদার গোলেই এক্সট্রা টাইমে এগিয়ে গিয়েছিল ক্রোয়েশিয়া৷ অনেকেই ভেবে নিয়েছিল অতিরিক্ত সময়ে ভিদার ঐ গোলই নির্ণায়ক হতে চলেছে৷ পরে ১১৫ মিনিটে ফার্নান্ডেজের গোলে সমতায় ফেরে রাশিয়া৷ ম্যাচ গড়ায় পেনাল্টি শ্যুটআউটে৷ সেখানে ৪-৩ ব্যবধানে ম্যাচ জিতে নেয় ক্রোয়েশিয়া৷

ম্যাচ জয়ের পরের পর্বটা অবশ্য সুখকর হল না ভিদার৷ ড্রেসিংরুমে সেলিব্রশেন সময় প্রাক্তন সতীর্থ ওগজেন ভুকোজেভিচের সঙ্গে একটি ভিডিও শ্যুট করেন ভিদা৷ সেই ভিডিওর শুরুতেই ভিদা বলে ওঠেন, ‘গ্লোরি ফর ইউক্রেন৷’

ফিফার শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির নিয়ম অনুয়ায়ী ম্যাচ চলাকালীন কোন ফুটবলার দর্শকদের মধ্যে বিশৃঙ্খলা তৈরির চেষ্টা করলে বা কোনও রকম উস্কানিমূলক আচরণ করলে তা অপরাধ হিসেবে ধার্য হবে৷ সেক্ষেত্রে অভিযুক্ত ফুটবলারকে ২ ম্যাচ পর্যন্ত নির্বাসনে পাঠাতে পারে ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা৷ ভিদার ক্ষেত্রে তাঁর মন্তব্য খতিয়ে দেখছে ফিফা৷ তারপরই তাঁর খেলা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে ফিফার কমিটি৷ অন্যদিকে ভিদার আচরণ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে শাস্তির দাবী জানিয়েছে রাশিয়ার সরকার৷

Advertisement
---