বিশ্বকাপের রানার্স পদক প্রত্যাখান ক্রোট তারকার

জাগরেব: বিশ্বকাপে দেশের হয়ে একটি ম্যাচও খেলেননি৷ তাই সুভাসিচ-মদ্রিচদের মতো রানার্স পদক প্রাপ্য নয় তাঁর৷ এই যুক্তিতেই বিশ্বকাপের রূপোর পদক প্রত্যাখান করেছেন ক্রোট তারকা নিকোলা কালিনিচ৷

জাতীয় দলে থাকলেও রাশিয়া বিশ্বকাপে এক ম্যাচের জন্য সুযোগ পাননি এই স্ট্রাইকার৷ কোচের সঙ্গেও ঝামেলায় জড়ানোর উদাহরণ রয়েছে৷ বিশ্বকাপে নাইজেরিয়ার বিরুদ্ধে ক্রোয়েশিয়ার প্রথম ম্যাচে সাইডলাইনের ধারে ক্রোট কোচ জ্লাতকো দালিচের সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়েছিলেন নিকোলা৷ পরবর্তী সময়ে কোচ তাঁকে ৮৫ মিনিটে পরিবর্ত ফুটবলার হিসেবে নামাতে চাইলে পিঠের চোটের কারণ দেখিয়ে মাঠে নামেননি কালিনিচ৷ এর আগেও নাকি ব্রাজিলের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচে পরিবর্ত ফুটবলার হিসেবে মাঠে নামতে অস্বীকার করেছিলেন এই ফুটবলার৷ ট্রেনিং সেশনেও অনিয়মিত হওয়ার কারণে কোচের সঙ্গে দূরত্ব বাড়িয়েছিলেন ক্রোট স্ট্রাইকার৷ পরে বিশ্বকাপ চলাকালীনই তাঁকে দেশে ফিরতে বলা হয়৷

ফাইনালে ফ্রান্সের কাছে ২-৪ গোলে ম্যাচ হারে মান্দুকিচরা৷ রূপোর পদক নিয়েই দেশে ফিরতে হয় প্রথমবার বিশ্বকাপ ফাইনালে ওঠা ক্রোয়েশিয়াকে৷ দলের অন্য ফুটবলারদের মতো কালিনিচ রূপোর পদক পেয়ে জানিয়েছেন, ‘আমাকে পদক দিয়ে সন্মান জানানোর জন্য ধন্যবাদ৷ তবে আমি মনে করি, এই পদকের যোগ্য নই৷

- Advertisement DFP -

 

Advertisement
----
-----