ফাইল চিত্র

লখনউ: গঙ্গাজল দিয়ে সংবিধান প্রণেতা বি আর আম্বেদকরের মূর্তি শুদ্ধ করলেন একদল দলিত আইনজীবী৷ দুধ, গঙ্গাজল দিয়ে মূর্তি শুদ্ধ করার কাজ চলে৷ কিন্তু আচমকা কি করে অশুদ্ধ হল মূর্তি?

জবাবে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন দলিত আইনজীবীরা৷ শুক্রবার উত্তরপ্রদেশের বিজেপির রাজ্য সম্পাদক সুনীল বনশল মালা পড়িয়ে আম্বেদকরকে শ্রদ্ধা জানান৷ দলিত আইনজীবীদের দাবি, বিজেপি নেতার হাতের ছোঁয়ায় অশুদ্ধ হয়েছে আম্বেদকরের মূর্তি৷ উত্তরপ্রদেশের জেলা আদালত চত্ত্বরে বসানো মূর্তি ঘিরে এই চাপান উতোর চলে৷

Advertisement

আইনজীবীদের দাবি যে দেশের সরকার দলিতদের উন্নয়নে কোনও কাজই করেনি, তাদের দলিত নেতাকে সম্মান জানানোর কোনও অধিকার নেই৷ সুনীল বনশল ও আরএসএসের রাকেশ সিনহার এই সম্মান জানানোর ঘটনা পুরোটাই সাজানো ও নাটক বলে মন্তব্য আইনজীবীদের৷

আইনজীবীরা এও জানান, বিজেপি নেতারা এসেছেন শুধু নিজেদের দলের বিজ্ঞাপন করতে৷ আম্বেদকরের প্রতি তাদের কোনও আন্তরিক সম্মান নেই বলেও অভিযোগ করেন তাঁরা৷ এরআগে, আম্বেদকর জয়ন্তীতে গুজরাটের ভদোদরার জিইবি সার্কলে রেসকোর্সের কাছে আম্বেদকরের মূর্তিতে মাল্যদান করতে যান কেন্দ্রীয় নারী ও শিশুকল্যাণমন্ত্রী মানেকা গান্ধী। তাঁর সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় বিজেপি সাংসদ রঞ্জনবেন ভাট, মেয়র ভরত দাঙ্গার, স্থানীয় বিজেপি বিধায়ক যোগেশ প্যাটেল সহ বহু বিজেপি নেতাকর্মী।

কিন্তু তাঁদের শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের আগেই মহারাজা সায়াজিরাও বিশ্ববিদ্যালয়ের দলিত কর্মী সংগঠন মাল্যদান করে। এমনকি বিজেপি নেতামন্ত্রীরা যাতে মাল্যদান না করতে পারে সে জন্য পুলিসের সঙ্গে বচসায় জড়িয়েও পড়েন সংগঠনের সদস্যরা। বিজেপির শ্রদ্ধাজ্ঞাপন অনুষ্ঠান হয়ে যাওয়ার পরই দলিত কর্মী সংগঠনটি আম্বেদকরের মূর্তিকে দুধ এবং জল দিয়ে স্নান করায়। সংগঠনের সভাপতি ঠাকোর সোলাঙ্কি বলেন, বিজেপির ছোঁয়ায় আম্বেদকর অশুদ্ধ হয়ে গিয়েছিলেন। সেজন্য তাঁর মূর্তির শুদ্ধিকরণ করলেন তাঁরা।

----
--