অপরিচ্ছন্ন সুপার স্পেশালিটি, অবস্থা দেখে ক্ষুব্দ জেলাশাসক

স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: হাসপাতাল, না খাটাল৷ বাইরে থকে সাইনোর্ড না দেখলে বোঝার উপায় নেই৷ সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ঢোকার মুখে জমে রয়েছে জল৷ দু’ধারে জবরদখলকারি৷ হাসপাতালের মধ্যে যত্রতত্র পড়ে আবর্জনা৷ হাসপাতালের নিকাশি নালা দখল করে গড়ে উঠেছে ঝুপড়ি৷ ফলে বুজে গিয়েছে হাসপাতালের নালা৷ স্বচ্ছতা অভিযান কর্মসূচিতে যোগ দিতে এসে সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের এই বেহাল দশায় ক্ষুব্দ বীরভূমের জেলাশাসক মৌমিতা গোদারা বসু৷

জেসাশাসকের সঙ্গে হাসপাতালে ঢোকার মুখে এদিন জমা জল পেরিয়ে ঢুকতে হয় জেলা সভাধিপতি ও জেলার সরকারি আধিকারিকদেরও৷

- Advertisement -

পরিস্থিতি দেখে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন জেলাশাসক৷ তিনি বলেন, ‘‘নর্দমার উপরে যে সমস্ত ঝুপড়ি রয়েছে সেগুলি সরাতে হবে খুব তাড়াতাড়ি সরাতে হবে৷ নাহলে হাসপাতালের নর্দমা গুলো বন্ধ হয়ে যাবে৷ অবনতি হবে হাসপাতালের ভিতরকার অবস্থারও৷’’ সুপার স্পেশালিটির বাইরে জবরদখলকারিদেরও সরানোর নির্দেশ দেন তিনি৷ বলেন, ‘‘জবরদখল মুক্ত করে ওই জায়গায় গাছ লাগানো হবে৷ এতে রোগী ও তাদের আত্মীয়দের সুবিধা হবে৷’’

আরও পড়ুন: সংস্কারের অভাবেই ভাঙল সেতু, অভিযোগ স্থানীয়দের

এবিষয়ে জেলা পরিষদের সভাধিপতি বিকাশ রায় চৌধুরী জানান, ‘‘যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আমরা এই সমস্যার সমাধান করতে চলেছি l আমরা চাইনা বীরভূম জেলার কোথাও অপরিচ্ছন্ন অবস্থায় থাকুক৷’’

সুপার স্পেশালিটি পরিস্কারে সর্বস্তরের আশ্বাস মিলেছে৷ কিন্তু তার বাস্তব রূপায়ণের অপেক্ষায় রাঙা মাটির দেশের মানুষ৷

Advertisement
---